পুনে : গলায় তার জড়ানো অবস্থায় উদ্ধার হল এক তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীর দেহ। রবিবার রাতে পুনের ইনফোসিস বিল্ডিং-এর ৯ তলার উপরে একটি কনফারেন্স রুম থেকে উদ্ধার হয় তরুণীর দেহটি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে সোমবার মুম্বই থেকে সংস্থার এক নিরাপত্তারক্ষীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ও অন্যান্য তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে এই গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, নিহতের নাম কে রসিলা রাজু। কেরালার বাসিন্দা রাসিলা। বয়স ২৫। পুনের রাজীব গান্ধী ইনফোটেক পার্কে কর্মরতা ছিলেন রসিলা। তিনি ঘটনার দিন নাগাড়ে তাঁর সহকর্মীর সঙ্গে অনলাইনে যোগাযোগ রেখেছিলেন। রবিবার রাতে গলায় কম্পিউটারের তার জড়ানো অবস্থায় পাওয়া যায় তাঁকে। জানা গেছে, ধৃত নিরাপত্তারক্ষী ভবেন সাইকাই অনেক দিন থেকেই উত্ত্যক্ত করছিল রসিলাকে। রসিলা কর্তৃপক্ষের কাছে নালিশের হুমকিও দেন। কিন্তু তাতেও কাজ হয়নি। এ দিন ছুটির দিন হলেও কাজে আসতে হয়েছিল রসিলাকে। এ দিন বিকেলে তাঁর সঙ্গে অশ্লীল আচরণ করে ওই নিরাপত্তারক্ষী। সন্ধ্যার সময় মৃতার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বারবার ফোন করেও কোনো সাড়া পাননি। শেষে রাত দশটার সময় তাঁরা রসিলার খোঁজ করতে এসে তাঁকে ওই অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

ঘটনায় শোকাহত সংস্থার কর্তৃপক্ষ। তাঁরা রসিলার পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। পাশাপাশি তদন্তের কাজে যাবতীয় সাহায্য করার কথাও জানানো হয়েছে সংস্থার তরফে। 

প্রসঙ্গত, এই নিয়ে দু’মাসে দু’টি মৃত্যুর ঘটনা ঘটল পুনে তথ্যপ্রযুক্তি জগতে। গত মাসে মৃত্যু হয় ২৩ বছরের অন্তরা দাসের। অফিস থেকে আধ কিলোমিটার দূরে খুন করা হয় অন্তরাকে। তাঁকে খুনের দায়ে গ্রেফতার হয় অন্তরার প্রাক্তন সহকর্মীকে। 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here