haryana

ওয়েবডেস্ক: কৌশলে এক ৬২ বছরের বৃদ্ধের ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়া। সেই ঘনিষ্ঠতাকে এগিয়ে নিয়ে গিয়ে অন্য এক যুবতীর সঙ্গে ওই বৃদ্ধের শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলার বন্দোবস্থ করে দেওয়া। তার পর সেই শারীরিক সম্পর্কের দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করে পর্নগ্রাফি ভিডিও বানিয়ে ফেলা। এ ভাবেই ওই বৃ্দ্ধকে ছিপে গেঁথে খেলানোর পর তাঁর কাছে থেকে নগদ ৫ লক্ষ টাকা দাবি করেছিলেন মহিলা। কিন্তু শেষ রক্ষে আর হল না।

হরিয়ানার কারনাল থানার পুলিশ ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করেছে ওই মহিলাকে। কিন্তু যে যুবতীর সঙ্গে ওই বৃদ্ধের শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও তৈরি হয়েছিল তাঁর হদিশ এখনও মেলেনি। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত মহিলার কাছ থেকে নগদ ৩ লক্ষ টাকা পাওয়া গিয়েছে।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, ধৃত মহিলা বৃদ্ধকে ফাঁসাতে বলেছিলেন, তাঁর কাছে একাধিক কম বয়সি সুন্দরী আছে। টাকা-পয়সা নিয়ে চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। কিন্তু সম্প্রতি টাকার জন্য ক্রমাগত চাপ দেওয়া শুরু করেন ওই মহিলা। বাড়তে থাকে টাকার পরিমাণও। শেষমেশ বাধ্য হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বৃদ্ধ।


পড়তে পারেন: এ বার যৌন কেচ্ছার অভিযোগে বিদ্ধ হলেন লেখক চেতন ভগত, ক্ষমা চাইলেন প্রকাশ্যে


জানা গিয়েছে, গত শনিবার ধৃতকে আদালতে তোলা হয়। পুলিশ পুরো চক্রের খোঁজ চালাচ্ছে। তাদের কাছে খবর রয়েছে, পঞ্জাব এবং হরিয়ানা জুড়ে ওই চক্রটি এ ভাবেই শিকার করে চলেছে। এক জনকে হাতেনাতে ধরার পর বাকিদেরও খুব শীঘ্র ধরা সম্ভব হবে বলে আশা করছে পুলিশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন