১০ বছরের পুরনো আধার কার্ড আপডেট করানোর জরুরি বিজ্ঞপ্তি, জানুন কী ভাবে, কোথায় করাবেন

0
Aadhaar Card

নয়াদিল্লি: আধার কার্ড নিয়ে বড়ো সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের। এ বার থেকে প্রতি ১০ বছর অন্তর আধার বায়োমেট্রিক তথ্য (Aadhaar biometric data) আপডেট করতে হবে কার্ডধারীকে। এমনই আবেদন জানিয়েছে আধার কার্ডের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অব ইন্ডিয়া (UIDAI)। বুধবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে ওই আবেদন জানানো হয়েছে।

অর্থাৎ, আপনার আধার কার্ড (Aadhar Card) যদি ১০ বছরের পুরনো হয়, তা হলে আপনাকে আপনার পরিচয়পত্র ও ঠিকানার বিস্তারিত তথ্য ফের আপডেট করতে হবে। সরকারি বিভিন্ন প্রকল্প এবং যোজনার সুবিধা পেতে আধার কার্ড আপডেট করা জরুরি বলে লেখা রয়েছে ইউআইডিএআই-এর ওই বিজ্ঞপ্তিতে। অনলাইন এবং অফলাইন দু’ভাবেই তথ্য আপডেট করা যাবে। সেজন্য আপনাকে কিছু অর্থ ব্যয় করতে হবে বলে জানিয়েছে ইউআইডিএআই।

কী ভাবে আপডেট করবেন

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যাঁরা দশ বছর আগে আধার কার্ড বানিয়েছিলেন এবং মাঝে এক বারও আপডেট করাননি, তাঁদের সচিত্র পরিচয়পত্র এবং ঠিকানার সমস্ত কাগজপত্র নতুন করে জমা দিয়ে কার্ড আপডেট করতে বলা হয়েছে। অনলাইনে ‘মাই আধার’ পোর্টালে বা নিকটবর্তী যে কোনো আধার কেন্দ্রে গিয়ে এটা করা যাবে। আধার কার্ড আপডেটের জন্য ফি দিতে হবে আধার কর্তৃপক্ষকে। তার পরেই নিজের সচিত্র পরিচয়পত্র এবং ঠিকানার প্রমাণ ওই পোর্টালে আপডেট করা যাবে।

আধারের তথ্য দুই রকমের

সবরকম সাবধানতা নিলেও নানা ভাবে আমাদের আধারের তথ্যে নানা ভুল-ত্রুটি  থেকে যায়। সেগুলি দ্রুত ঠিক করে নেওয়া দরকার। এই কাজ করা যায় আধার সেন্টারগুলিতে গিয়ে। সেখানে গিয়ে আধারে কোনও ভুল থাকলে কিংবা আধারের সঙ্গে ফোন নম্বর সংযোগ করতে চাইলে তা করা যায়। আধারের তথ্য দুই রকমের হয়ে থাকে। একটি হল ডেমোগ্রাফিক ইনফরমেশন। এগুলির মধ্যে পড়ে নাম, জন্মতারিখ, ঠিকানা, ফোন নম্বর-ইত্যাদি। অন্যটি হল বায়োমেট্রিক ইনফরমেশন। এগুলির মধ্যে পড়ে মুখের ছবি, আঙুলের ছাপ, চোখের মণির ছবি। এগুলির মধ্যে ডেমোগ্রাফিক ইনফরমেশনের ক্ষেত্রে অনেকসময়েই নানা ত্রুটি হয়ে যায় আধারে।

কয়েক সপ্তাহ আগেই ইউআইডিএআই বলেছিল, বর্তমানে সাধারণ মানুষকে স্বেচ্ছায় আধার কার্ডে তাদের বায়োমেট্রিক ডেটা আপডেট করতে উৎসাহিত করা হবে। লাইভ হিন্দুস্তান ওয়েবসাইটের রিপোর্ট অনুযায়ী, জনগণকে তাদের মুখ এবং ফিঙ্গার প্রিন্ট (আঙুলের ছাপ) স্ক্যান আপডেট করতে অনুপ্রাণিত করবে সরকার। তবে এই আপডেট করানো বাধ্যতামূলক কি না, তা ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলেনি ইউআইডিএআই।

শিশু-কিশোরদের জন্য বাধ্যতামূলক

এখন পাঁচ থেকে ১৫ বছর বয়সি শিশু-কিশোরদের বাধ্যতামূলক ভাবে তাদের বায়োমেট্রিক ডেটা আপডেট করতে হয়। পাঁচ বছরের কম বয়সি শিশুদের তাদের ছবি এবং তাদের পিতামাতা বা অভিভাবকের বায়োমেট্রিক অথেন্টিকেশনের ভিত্তিতে আধার রেজিস্টার্ড করা হয়।

শিশুদের ক্ষেত্রে বাল আধারের (Bal Aadhaar) জন্য নথিভুক্তির সময় সম্পর্কের নথির প্রমাণ (বিশেষত জন্ম শংসাপত্র) সংগ্রহ করা হয়। সাধারণ আধারের থেকে বাল আধারকে আলাদা করার জন্য এটির রং নীল। তবে, শিশুর বয়স ৫ বছর না হওয়া পর্যন্তই এটি বৈধ।

পাঁচ বছর বয়সে পৌঁছালেই বাধ্যতামূলক ভাবে বায়োমেট্রিক আপডেট (MBU) নামের একটি প্রক্রিয়ার জন্য শিশুকে আধার সেবা কেন্দ্রে নিয়ে গিয়ে তার বায়োমেট্রিক তথ্য দিতে হয়। এ বার কতকটা একই রকম ভাবে, সাধারণকেও প্রতি ১০ বছর অন্তর নিজের বায়োমেট্রিক তথ্য আপডেট করাতে হবে বলে দাবি করা হয়েছে ওই রিপোর্টে।

আরও পড়তে পারেন:

৭৮ দিনের বোনাস পাবেন রেলকর্মীরা, তবে আগের বছরের তুলনায় বরাদ্দ কমাল কেন্দ্র

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন