Amir Khan

ওয়েবডেস্ক: বছর তিনেক আগে অসহিষ্ণুতা প্রসঙ্গে মুখ খুলে কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির রোষে পড়েছিলেন বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান। রবিবার একটি বৈদ্যুতিন টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠানে ফের তিনি সাধারণ নাগরিক হিসাবে জবাবদিহি চাওয়ার দাবি তুললেন।

২০১৪ সালে বিজেপি সরকার কেন্দ্রের ক্ষমতায় আসার পর বিভিন্ন ইস্যুতে অসিহষ্ণুতার অভিযোগে সরব হয়েছেন বিদ্বজ্জনেরা। বলিউডের বাদশা হিসাবে পরিচিত শাহরুখ খানকেও সে সময় বিজেপির একাংশের সমালোচনা সহ্য করতে হয়। থেমে থাকনেনি আমির খানও। ভিমরুলের চাকে ঢিল ছোড়ার মতো তিনি একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে বলেছিলেন, ‘‘এ দেশে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি৷” নিরাপত্তাহীনতার কারণ ক্রমশ বেড়ে চলা অসহিষ্ণুতা৷ এর পরে আমিরের সংযোজন, ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার এই সময়ে সপরিবারে দেশ ছাড়ার কথাও বলেছেন তাঁর স্ত্রী কিরণ রাও।

ওই ঘটনার পর জল গড়িয়েছে বহুদূর। সম্প্রতি আবার ওই সংবাদ মাধ্যমের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে আমির বলেন, “নাগরিক হিসাবে আমরা সরকারের কাছে প্রশ্ন করতেই পারি। তারা আমাদের প্রশ্নের উত্তর দিতে বাধ্য। কিন্তু সেখানে একটা অন্য বিষয়ও আছে। একটা মন্ত্রককে ধরুন। সেখানে অনেক ভালো মানুষও আছেন। তাঁদের উদ্দেশ্যও ভালো। কিন্তু পরিবর্তন তখনই আসে, যখন আমরা পরিবর্তন নিয়ে আসি”।


আরও পড়ুন: কী ছিল ৭১ নম্বর ক্যানিং স্ট্রিটে?

আমির আরও বলেন, “এটা ঠিক সরকার কোনো ভালো আইন নিয়ে আসতে পারে না।কিন্তু প্রকৃত সমাধানটা আসে আমাদের হাত ধরেই। এটা জানবেন নেতিবাচক মানুষ সব জায়গাতেই আছেন। আমি তাঁদের কোনো দোষ দিচ্ছি না। কারণ নেতিবাচক আবহটাই তাঁদের ঘিরে রেখেছে”।

রাজনীতিতে যোগ দিতে পারেন কি না, এমন প্রশ্নের উত্তরে আমিরের বক্তব্য, “এক জন সৃজনশীল মানুষ হিসাবে আমি কোনো রাজনৈতিক নেতার থেকে অনেক ভালো কাজ করতে পারি। আমি রাজনীতিকে ভয় পাই”।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন