মুম্বইয়ে বৃক্ষনিধন রুখতে এ বার বড়োসড়ো পদক্ষেপ আন্দোলনকারীদের

0

মুম্বই: গাছের নিধন রুখতে এ বার প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের কাছে দরবার করতে চলেছেন মুম্বইয়ের আন্দোলনকারীরা। সেই উদ্দেশ্যে রবিবারই দিল্লি রওনা দিচ্ছে তাঁদের একটি প্রতিনিধি দল।

গাছ কাটা যাতে অবিলম্বে বন্ধ করা যায়, সে কারণে প্রধান বিচারপতির কাছে তাঁর বিশেষ ক্ষমতা প্রয়োগের দাবি জানাবেন আন্দোলনকারীরা।

আন্দোলনকারী পড়ুয়াদের তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘‘আদালতে পিটিশন জমা দেওয়া বা আইনি প্রক্রিয়া মেনে এগোনোর মতো সময় নেই হাতে। তত দিনে মুম্বই পুরসভা কর্তৃপক্ষ অ্যারে ফাঁকা করে ফেলবে। অ্যারে-কে বাঁচাতে তাই প্রধান বিচারপতির দরজায় কড়া নাড়তে হচ্ছে।’’

প্রায় পাঁচ লক্ষ সবুজ গাছপালায় ঢাকা ১২৮০ হেক্টর আয়তনের অ্যারে মায়ানগরীর ফুসফুস হিসাবে পরিচিত। ওই এলাকাতেই মেট্রো রেলের কারশেড গড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবীশের সরকার। তার জন্য ২ হাজার ৬৪৬টি গাছ কাটার অনুমতি দিয়েছে বৃহন্মুম্বই পুরসভার বৃক্ষ বিভাগ।

আরও পড়ুন: ফারুক-ওমরের পর এ বার মেহবুবার সঙ্গেও দলীয় নেতৃত্বকে সাক্ষাতের ছাড়পত্র দিল প্রশাসন

এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বোম্বে হাইকোর্টে একাধিক আবেদন জমা পড়ে। কিন্তু গত শুক্রবার সব আবেদনই খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট।

এই রায় আসার পরেই কার্যত সঙ্গে সঙ্গেই বৃক্ষ নিধন শুরু হয়। রাতারাতি গাছ কাটার কী দরকার পড়ল, সে নিয়ে বিক্ষোভ দেখা শুরু করেন আন্দোলনকারীরা। কিন্তু পুলিশ সেই সব গ্রাহ্য না করে উলটে আন্দোলনকারীদেরই গ্রেফতার করেছে।

এখন তাদের ভরসা একমাত্র গগৈ, যদি তিনি তাঁর বিশেষ ক্ষমতা প্রয়োগ করে কিছু করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here