“‘অতিথি দেব ভব’র নমুনা দেখলাম”, কনভয়ে হামলা প্রসঙ্গে ত্রিপুরা সরকারকে কটাক্ষ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: “‘অতিথি দেব ভব’র নমুনা দেখলাম”। ত্রিপুরা পৌঁছে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে এ ভাবেই তোপ দাগলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার, ত্রিপুরা পৌঁছোনোর পরেই তাঁর কনভয়ে হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ করেন অভিষেক।

সর্বভারতীয় রাজনীতিতে শক্তি বাড়াতে তৃণমূল কংগ্রেস যে বাংলার বাইরে প্রথম রাজ্য হিসাবে ত্রিপুরাকেই টার্গেট করেছে, তা গত কয়েকদিনে অনেকটাই স্পষ্ট। আর সেই উদ্দেশ্য নিয়েই সোমবার ত্রিপুরা পৌঁছে যান তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক।

Loading videos...

ঠিক ছিল ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পুজো দিয়েই বাকি কর্মসূচিতে পা বাড়াবেন। কিন্তু তার আগেই শুরু হয়ে যায় বিক্ষোভ। অভিযোগ, অভিষেকের কনভয়ে হামলা চালান বিজেপি সমর্থকরা। ওঠে ‘গো ব্যাক’ স্লোগানও।

এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও টুইট করে অভিষেক। তৃণমূলের তরফে অভিযোগ, যাত্রাপথে দফায় দফায় বিক্ষোভের মুখে পড়ে অভিষেকের কনভয়। একাধিক জায়গায় পথ আটকানো হয়। লাঠি দিয়ে গাড়িতে মারা হয়।

এই ঘটনার ভিডিও টুইট করে অভিষেক লেখেন,লেখেন, “বিজেপির আমলে ত্রিপুরার গণতন্ত্র! রাজ্যকে নয়া উচ্চতায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিপ্লব দেবকে ধন্যবাদ।” ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে যাওয়ার আগে বারবারই বাধা পান অভিষেক। বেলা ১২টা নাগাদ মন্দিরে পৌঁছনোর কথা থাকলেও লাগাতার পথ অবরোধের জেরে গন্তব্যে পৌঁছতে বেশ খানিকটা দেরি হয় অভিষেকের। দুপুর ১.২৫ নাগাদ মন্দিরে পৌঁছে পুজো দেন তিনি।

যেভাবে ত্রিপুরাতে পা রেখেই বিক্ষোভের মুখে পড়তে হল, তাতে ত্রিপুরা সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে ছাড়েননি ক্ষুব্ধ অভিষেক। কটাক্ষের সুরে বলে দেন, “কথায় বলে অতিথি দেব ভব। তার নমুনা দেখলাম ত্রিপুরায় এসেই। বিজেপি বারবার বলে বাংলায় গণতন্ত্র নেই। এই রাজ্যে কী হচ্ছে আগে সেটা দেখুক।”

আরও পড়তে পারেন সংগ্রামপুর বিষমদ-কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত খোঁড়া বাদশার আমৃত্যু কারাদণ্ড

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন