কপিল শর্মার ‘প্রমাণ’-এর ভিত্তিতে কেজরির বিরুদ্ধে তদন্তে অ্যান্টি করাপশন ব্যুরো

নয়াদিল্লি: দুর্নীতির অভিযোগে টালমাটাল একদা দুর্নীতির বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করা অরবিন্দ কেজরিওয়াল। রবিবারই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দু’কটি টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ করেন সদ্য মন্ত্রিত্ব খোয়ানো কপিল মিশ্র। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার কেজরির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করল অ্যান্টি করাপশন ব্যুরো (এসিবি)। কপিলের দাবি কেজরিওয়ালের দুর্নীতির উপযুক্ত প্রমাণ তিনি এসিবিকে দিয়েছেন।

অবশ্য কী প্রমাণ দিয়েছেন সে ব্যাপারে খোলসা করেননি মিশ্র। তাঁর দাবি, এরপর তিনি কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্ত করতে সিবিআইয়ের কাছে দরবার করবেন। কেজরিওয়ালের দু’কোটি টাকা ঘুষ নেওয়ার ব্যাপারে কপিল বলেন, “আমি নিজের চোখে দেখেছি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের থেকে দু’ কোটি টাকা নিচ্ছেন কেজরিওয়াল। আমি যখন এই ব্যাপারে তাঁকে জিজ্ঞেস করলাম, উনি বললেন, রাজনীতিতে এ রকম ব্যাপার চলতেই থাকে।”

রবিবার দিল্লির রাজ্যপাল অনিল বৈজালের কাছে দুর্নীতির কিছু প্রমাণ তুলে দেন কপিল। দুর্নীতির তদন্ত করতে এসিবিকে দায়িত্ব দেন রাজ্যপাল। তদন্তের জন্য এসিবিকে সাত দিনের সময় দেন তিনি। সোমবার নিজের অভিযোগকে আরও জোরদার করতে এসিবির হাতে আরও কিছু তথ্য দেন দিল্লির প্রাক্তন মন্ত্রী।

এ দিকে কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ জোরালো হলেও, তাঁর পাশেই দাঁড়িয়েছেন আম আদমি পার্টির সহকর্মীরা। দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়া বলেছিলেন কেজরিয়ালের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। সোমবার তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে কুমার বিশ্বাস বলেন, কেজরির চরমতম শত্রুও বলবে না তিনি দুর্নীতিপরায়ণ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.