activists

ওয়েবডেস্ক: বাড়িতেই নজরবন্দি রাখতে হবে পাঁচজনকে। পুলিশ কোনো মতেই নিজেদের হেফাজতে নিতে পারবে না ভারভারা রাও-সহ ধৃত পাঁচ অভিযুক্তকে। বুধবার সমাজকর্মী গ্রেফতারি নিয়ে এমনটাই নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। স্বাভাবিক ভাবেই সর্বোচ্চ আদালতের এই সিদ্ধান্তে জোর ধাক্কা খেল মহারাষ্ট্র সরকার।

গত মঙ্গলবার পুলিশ ওই পাঁচ সমাজকর্মীকে গ্রেফতার করে। কারণ হিসাবে বলা হয়, ধৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মাওবাদীদের কর্মকাণ্ডের প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ওই সমাজকর্মীদের যে আইনের বলে পুণে পুলিশ গ্রেফতার করে সেটিকে একটি বিতর্কিত আইন বলেই মনে করেন আইনজ্ঞরা। তবুও পুলিশের ওই গ্রেফতারির পর সারা দেশ জুড়েই প্রবল সমালোচনার সৃষ্টি হয়। শুধু মাত্র বাম মনোভাবাপন্ন নয়, সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষই এমন গ্রেফতারির প্রতিবাদ জানান নিজের মতো করে।

এ দিন সুপ্রিম কোর্ট বলে, অভিযু্ক্তদের বিরুদ্ধে যদি কোনো প্রামাণ্য তথ্য থেকে থাকে তা হলে এত দিন বাদে কেন তাঁদের গ্রেফতার করা হল। উল্লেখ্য, ভিমা কোরেগাঁওয়ে দলিত সম্প্রদায়ের একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে হাঙ্গামা বাঁধানোর অভিযোগ ওঠে। সেই হাঙ্গামার পিছনে এই পাঁচজন সমাজকর্মীর ভূমিকা রয়েছে বলে প্রথমে জানিয়েছিল পুলিশ। তার পরেই আসে মাও-তত্ত্ব।


আরও পড়ুন: ফতুর হওয়ার এই তো সুবর্ণ সুযোগ!

সুপ্রিম কোর্টে প্রশ্ন, দীর্ঘ ৯ মাস পর কেন গ্রেফতার করা হল অভিযুক্তদের। এমন প্রশ্নের উত্তরে সরকারি আইনজীবী জোরালো কোনো উত্তর দিতে পারেননি। আদালত জানায়, অভিযুক্ত পাঁচজনকেই বাড়িতে নজরবন্দি হিসাবে রেখে তদন্ত চালাবে পুলিশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন