জন্মানোর ৩৭০ বছর পর ‘অভিভাবক’ পেতে চলেছে এই ‘শিশু’

0

ওয়েবডেস্ক: জন্মানোর ৩৭০ বছর ‘অভিভাবক’ পেতে চলেছে এই ‘শিশুটি’। ‘শিশুটির’ ‘অভিভাবক’ কে হবে সেটা নিয়ে এখন লড়াই চলছে তামাক সংস্থা আইটিসি এবং নির্মাণকারী সংস্থা জিএমআরের মধ্যে।

এ বার একটু খুলে বলা যাক, এখানে যে ‘শিশু’টির কথা বলা হচ্ছে সেটি ভারতের ঐতিহাসিক সৌধ তাজমহল। কেন্দ্রের ‘অ্যাডপ্ট আ হেরিটেজ’ প্রকল্পের মধ্যে দিয়ে তাজমহলকে দত্তক নেওয়ার এই তোড়জোড় শুরু হয়েছে।

Loading videos...

এই প্রকল্পের মধ্যে ভারতের ঐতিহাসিক সৌধগুলিকে দেখভালের জন্য সরকারি বা বেসরকারি যে কোনো সংস্থা তাদের দত্তক নিতে পারে। এর জন্য বিভিন্ন সংস্থাকে সিএসআর (কর্পোরেট সোশ্যাল রেসপনসিবিলিটি) বাজেট তৈরি করতে বলেছে কেন্দ্র। সৌধগুলি যদিও ভারতের প্রত্নতাত্ত্বিক সর্বেক্ষণের (এএসআই) আওতাতেই থাকবে। কেন্দ্রের নির্দেশ, এই সৌধগুলিকে দেখভালের জন্য নিজেদের বার্ষিক লাভের অঙ্ক থেকে অন্তত ২ শতাংশ অর্থ খরচ করুক সংস্থাগুলি।

আইটিসি এবং জিএমআর, দু’টি সংস্থার মুখপাত্রই জানিয়েছেন যে তাঁরা তাজমহলকে দত্তক নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন এবং এই মর্মে পর্যটন দফতরের কাছে চিঠিও পাঠিয়েছেন।

গত বছর সেপ্টেম্বরে এই প্রকল্প চালু করে কেন্দ্র। তখনই জিএমআর তাজমহলকে দত্তক নেওয়ার ব্যাপারে কেন্দ্রের কাছে আবেদন করে। উল্লেখ্য, আইপিএল দল দিল্লি ডেয়ারডেভিল্‌সের মালিক জিএমআর। যদিও কেন্দ্র তখন জানিয়েছিল, তাজমহলকে এই প্রকল্পের আওতায় রাখা হয়নি কারণ তার ‘গুরুত্ব অপরিসীম।’

সেই সময় কেন্দ্র জিএমআরকে বলেছিল তাজমহল থেকে আগরা ফোর্ট সংযোগকারী তাজ করিডরকে দেখভাল করার দায়িত্ব নিক জিএমআর। এএসআইয়ের এক আধিকারিক বলেন, “১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় বাজেটের সময় ‘অ্যাডপ্ট আ হেরিটেজ’ প্রকল্পে তাজমহলকেও রাখা হয়।”

তাজমহল দত্তক নেওয়ার ব্যাপারে আবেদন করেছে আইটিসিও। তবে কারও ক্ষেত্রেই এখনও পর্যন্ত ‘লেটার অফ ইন্টেন্ট’ পাঠায়নি কেন্দ্র। এএসআইয়ের আধিকারিক জানান, আবেদনের মধ্যে থেকে বাছাই করা সংস্থাগুলিকে ‘লেটার অফ ইটেন্ট’ পাঠানো হবে। কী ভাবে তারা সৌধগুলিকে দেখভাল করবে সে ব্যাপারে একটি নথি চাওয়া হবে। সেই নথি খতিয়ে দেখবে সাত সদস্যের একটি কমিটি। কমিটিতে থাকবেন এএসআই, পর্যটন দফতর এবং সংস্কৃতি দফতরের কর্তারা। তার পর তাঁরা ঠিক করবেন কোন সংস্থা দত্তক নেওয়ার সুযোগ পাবে।

জিএমআর জানিয়েছে। তাজমহল ছাড়াও আগরার ইতমাত-উদ-দৌল্লাহ এবং দিল্লির লাল কেল্লাকে দত্তক নেওয়ার আবেদন করেছে তারা। অন্য দিকে অন্ধ্রপ্রদেশের বিভিন্ন ‘রক-কাট’ মন্দির এবং হায়দরাবাদের চারমিনারকে দত্তক নেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছে আইটিসি।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন