অমর্ত্য সেনকে ‘নিজের চরকায় তেল’ দিতে বললেন তথাগত রায়

0
tathagata roy and Amartya Sen

ওয়েবডেস্ক: নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন গত সপ্তাহের একটি অনুষ্ঠান থেকে ‘জয় শ্রীরাম’ নিয়ে খোঁচা দিয়েছিলেন বিজেপিকে। বলেছিলেন, “জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি এখন মানুষ মারার মন্ত্র। যেখানেই এই ধ্বনি শোনা যাচ্ছে সেখানেই বেধড়ক মারধর খাচ্ছেন মানুষ। এই সংস্কৃতি বাংলার সংস্কৃতি নয়”। ওই মন্তব্য নিয়ে দেশব্যাপী আলোড়নের সৃষ্টি হওয়ার পর রবিবার তাঁকে রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতীচী ট্রাস্টের একটি অনুষ্ঠানে অমর্ত্য মন্তব্য করেন, “মা দুর্গা’, ‘জয় শ্রীরাম‘ স্লোগান দেওয়া বাঙালি সংস্কৃতির সঙ্গে খাপ খায় না। বরং ইদানীং এগুলো জনগণকে অকারণে মারধর করার হাতিয়ার হয়ে উঠেছে। এতদিন বাংলায় ধুমধাম করে রামনবমী পালন হতো না তো। বিশেষ একটি দলের কল্যাণে এখন সেটাও হচ্ছে”।

অমর্ত্যর এহেন মন্তব্যের পর বিজেপির রাজ্য-কেন্দ্রের তাবড় নেতারা তাঁর সমালোচনায় নামেন। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “অমর্ত্য সেন হয়তো বাংলাকে চেনেন না। উনি কি বাংলা বা ভারতীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে জানেন? প্রত্যেক গ্রামে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি উঠছে। গোটা বাংলা এই স্লোগান দিচ্ছে”।

এ বার একই ঢঙে হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্যপাল তথাগত। তিনি বলেন, “রামরাজাতলা অথবা শ্রীরামপুর কি পশ্চিমবঙ্গে অবস্থিত, না কি অন্য কোথাও? আমরা কি ভূতের ভয় পেলে ‘রাম’ রাম’ করি না? তিনি অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন। ফলে তাঁর উচিত অর্থনীতিতেই নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখা”।

এক দিকে যেমন অমর্ত্যর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তথাগত প্রমাণ করতে চেয়েছেন, বাংলার সংস্কৃতি এবং সমাজ জীবনের সঙ্গে রাম নাম জড়িত, তেমনই নিজের কাজেই মন দেওয়ার কঠিন পরামর্শও দিয়েছেন।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.