রায়পুর: সোমবার মাওবাদী হামলার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই সুকমা পৌঁছলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। সতর্কতা জারি হয়েছে সুকমা এবং  সুকমা সংলগ্ন ঝাড়খণ্ডের অন্যান্য অঞ্চলে। সুকমায় মাওবাদীদের ভয়াবহ হামলা নিয়ে সিআরপিএফকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রিপোর্ট পেশ করার নির্দেশ দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। মঙ্গলবার আহত জওয়ানদের দেখতে রায়পুরের হাসপাতালে যান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সঙ্গে ছিলেন ছত্তীসগঢ়ের মুখ্যমন্ত্রী রমন সিং।

সোমবার দুপুরে সুকমা জেলায় মাওবাদী হামলায় মৃত্যু হয় ২৫ জন সিআরপিএফ জওয়ানের। আহত হন আরও ৬ জওয়ান। ২০১০-এরপর এত বড়ো হামলা এই প্রথম। সূত্রের খবর অনুযায়ী ঝাড়খণ্ড-ছত্তীসগড় সীমানায় এবং বুরা পাহাড় এলাকায় আবারও হামলা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ওই সমস্ত অঞ্চল সিল করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: সাত বছরে সব চেয়ে ভয়াবহ মাওবাদী হামলা, ছত্তীসগঢ়ের সুকমায় হত ২৬ সিআরপি

 

হামলা প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, “কোনো অবস্থাতেই মাওবাদী হামলায় ২৫ জন জওয়ানের মৃত্যু মেনে নেওয়া যায় না। দেশের মাওবাদবিরোধী নীতিগুলো নতুন করে পর্যালোচনা করা হবে। প্রয়োজন হলে সরকারি আধিকারিকদের নিয়ে আগামী ৮ মে আমরা বৈঠক করব”। সুকমার মাওবাদী হামলাকে ‘ঠান্ডা মাথায় হত্যা’ বলে বর্ণনা করেছেন মন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি আরও জানান, ২৫ জন জওয়ানের মৃত্যুর জন্য যথার্থ নেতৃত্বের অভাবকে দায়ী করা যায় না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here