সায়নী ঘোষ থানায় ঢুকতেই ইটবৃষ্টি, গাড়ি ভাঙচুর, বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ

0

আগরতলা: রবিবার ফের এক বার নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে উঠল ত্রিপুরা। তৃণমূল নেতারা সায়নী ঘোষকে নিয়ে আগরতলা পূর্ব মহিলা থানায় ঢোকার পর ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল এলাকায়। ইটবৃষ্টিতে আহত বেশ কয়েক জন। গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগও উঠেছে। অভিযোগের তির বিজেপি-র বিরুদ্ধে।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আগরতলা সফরের ঠিক ২৪ ঘণ্টা আগে এ দিনের ঘটনায় অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল ত্রিপুরা। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তৃণমূল নেতাদের থানায় ডেকে নিয়ে গিয়ে হামলার অভিযোগ উঠেছে বিজেপি-র বিরুদ্ধে। আহত হয়েছেন একাধিক তৃণমূল কর্মী ও নেতা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

এ দিন সকালে তৃণমূল নেতাদের হোটেলেই হানা দেয় স্থানীয় পুলিশ। দাবি করা হয়, সায়নী ঘোষের গাড়ির ধাক্কায় একজন জখম হয়েছেন। সেই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সায়নীকে আটক করতে চায় পুলিশ। তবে পুলিশকে আগে নোটিশ দিতে হবে বলে দাবি করেন তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ। এমনকী, সায়নীকে থানায় নিয়ে যেতে বাধা দেন তিনি। পরে অবশ্য সায়নীকে নিয়ে থানায় যাওয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

এর পরই সায়নীকে নিয়ে আগরতলা মহিলা থানায় যান সুস্মিতা দেব, কুণাল ঘোষ, অর্পিতা ঘোষ। তৃণমূল নেতারা থানায় ঢোকার পর নতুন করে উত্তেজনার খবর। বিজেপি-র বিরুদ্ধে থানায় ঢুকে হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে। তৃণমূলের দাবি, থানার বাইরে লাঠি হাতে, হেলমেট পরে জমায়েত করে বিজেপি। সায়নী থানায় ঢুকতেই আক্রমণ করে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। সেই সঙ্গে তৃণমূল নেতা সুবল ভৌমিকের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে বলেও অভিযোগ।

সুস্মিতা জানান, “ত্রিপুরা পুলিশ বিজেপি-কে ভোটে জেতাতে চায়। সেই জন্যই আমাদের বার বার বাধা দেওয়া হচ্ছে। বিজেপি যা খুশি তাই করছে, আর গাড়ির ভিতর থেকে একটা ছবি তুলেছে বলে পুলিশ আমাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে। সায়নী কিছুই জানেন না। আমাদের প্রার্থী মাথা ফাটিয়ে, হাত-পা ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ কিছু করছে না। বিজেপির পায়ের নীচে জমি নেই, তাই এ সব করছে”।

আরও পড়তে পারেন:

ত্রিপুরায় তৃণমূল নেতাদের হোটেলে হানা, বিনা নোটিশে সায়নী ঘোষকে থানায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা পুলিশের

ডিআর: কেন্দ্রীয় সরকারি অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের অ্যাকাউন্টে ৪ মাসের বকেয়া জমা হবে কবে

১৭ দিন আগে শুল্ক কমিয়েছিল কেন্দ্র, রবিবার পেট্রোল-ডিজেলের দাম কত

২৪ নভেম্বর বিতর্কিত তিন কৃষি আইন বাতিলের অনুমোদন দিতে পারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা

প্রয়োজনে আবার করা হবে, কৃষি আইন বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে বললেন রাজস্থানের রাজ্যপাল

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন