জিয়াগঞ্জ হত্যাকাণ্ডের তদন্তে কড়া বার্তা আসাউদ্দিন ওয়েইসির

asaduddin owaisi and Mamata Banerjee
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে স্ত্রী, পুত্র-সহ শিক্ষক খুনের তদন্তে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে বিশেষ আর্জি জানালেন এআইএমআইএম প্রধান তথা সাংসদ আসাউদ্দিন ওয়েইসি। তিনি দাবি করেছেন, “দলমত নির্বিশেষে অপরাধীদের ধরে কঠোরতম শাস্তি দেওয়া হোক”।

গত বিজয়া দশমীর দিন পেশায় শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল (৩৫), তাঁর সন্তানসম্ভবা স্ত্রী বিউটি মণ্ডল (৩০) এবং তাঁদের ছ’বছরের সন্তান বন্ধুঅঙ্গন পালকে নৃশংস ভাবে খুন করে দুষ্কৃতীরা। ঘরের মধ্যে এই বীভৎস খুনের কিনারা করতে তদন্তে নামে জেলা পুলিশ। কিন্তু এখনও পর্যন্ত খবর, খুনের সঙ্গে জড়িত কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

সূত্রের খবর, ঠিক কী কারণে এই নারকীয় কাণ্ড, সে ব্যাপারেও নির্দিষ্ট কোনো তথ্য এখন সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। এই ঘটনার নেপথ্যে একাধিক সম্ভাব্য সূত্রের হদিশ মিললেও স্থির সিদ্ধান্তে এখনও আসতে পারেনি পুলিশ। ফলে একই পরিবারের তিন সদস্যের এই খুনের প্রকৃত কারণ এখনও ধোঁয়াশায়।

এরই মধ্যে ওয়েইসি টুইটারে লিখেছেন, “এই ঘৃণ্য অপরাধের দোষীরা যাতে সম্ভাব্য সর্বোচ্চ সাজা পায়, সেই বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশাসনকে। আমরা বরাবরই আরএসএসের মতাদর্শ এবং কর্মকাণ্ডের বিরোধী। কিন্তু তা কখনোই এ জাতীয় বর্বর সহিংসতার ভিত্তি হতে পারে না। আইনের বিধি কখনোই উপেক্ষা করা যায় না”।

প্রসঙ্গত, আরএসএসের দাবি সপরিবারে খুন হওয়া শিক্ষক তাদের কর্মী ছিলেন। তবে পুলিশ সূত্রে খবর, এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনো যোগ নেই।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.