Babri Masjid

নয়াদিল্লি: এখনও পর্যন্ত অযোধ্যার জমি সংক্রান্ত সমস্ত নথি তৈরি না হওয়ায় অযোধ্যা মামলার শুনানি ফের পিছিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। তবে তারা জানিয়েছে এই মামলাটিকে ধর্মীয় দিক থেকে নয়, শুধুমাত্র জমি বিবাদের মামলা হিসাবেই দেখবে শীর্ষ আদালত।

২০১০-এর ৩০ সেপ্টেম্বর অযোধ্যা বিবাদ সংক্রান্ত মামলায় এলাহাবাদ হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছিল তার বিরুদ্ধে তেরোটা আবেদন জমা পড়ে সুপ্রিম কোর্টে। এলাহাবাদ হাইকোর্ট তাদের রায়ে এই জমিকে তিন বিবদমান পক্ষ সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড, নিরমোহি আখারা এবং হিন্দু মহাসভার মধ্যে সমান ভাগে ভাগ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চের সামনে এই মামলার শুনানি হচ্ছে। ডিভিশন বেঞ্চের বাকি দুই সদস্য হলেন অশোক ভূষণ এবং এস আব্দুল নাজির।

উল্লেখ্য, গত বছর ৫ ডিসেম্বর অযোধ্যা মামলার শুনানির প্রথম দিন কপিল সিবাল আবেদন করেন এই শুনানিকে ২০১৯-এর জুলাইয়ের পর্যন্ত পিছিয়ে দিতে, ততদিনে দেশে লোকসভা নির্বাচন শেষ হয়ে যাবে। সেই সঙ্গে তাঁর আরও দাবি ছিল এই মামলার শুনানির জন্য পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ তৈরি করা হোক। সিবালের দু’টি আবেদনই অবশ্য নাকচ করে দেয় ডিভিশন বেঞ্চ।

এদিন ১৪ মার্চ পর্যন্ত শুনানি পিছিয়ে দেওয়ার কথা জানায় সুপ্রিম কোর্ট। সেই সঙ্গে তারা জানিয়ে দেয়, একবার শুরু হলে আর কোনো বিরতি নয়, টানা চলবে শুনানি।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন