ওয়েবডেস্ক: সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শনিবারই জোটের ঘোষণা করে দিতে পারেন সপা নেতা অখিলেশ যাদব এবং বসপা নেত্রী মায়াবতী। শনিবার একটি যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনেরও ডাক দেওয়া হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, এই সম্মেলনের মধ্যে দিয়েই আসনরফা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাতে পারে দুই দল।

গত বছর মার্চে উত্তরপ্রদেশের দু’টি লোকসভা আসনে উপনির্বাচনের মধ্যে দিয়ে দুই দলের মধ্যে জোটের সূচনা হয়। গোরক্ষপুর এবং ফুলপুর কেন্দ্রে সপা প্রার্থীদের সমর্থন করে বসপা। পরিণামে দু’টি আসনেই গোহারা হয় বিজেপি। এর পর থেকেই সপা-বসপা জোট নিয়ে জল্পনা বাড়তে থাকে। সেই জোটে কংগ্রেস শামিল হবে কি না, সেই নিয়েও বাড়তে থাকে জল্পনা।

গত সপ্তাহে দিল্লিতে একটি বৈঠক করেন অখিলেশ এবং মায়াবতী। সেই বৈঠক সূত্রে খবর আসে কংগ্রেসকে বাইরে রেখেই জোটের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে দুই দল।

সূত্রের খবর, রাষ্ট্রীয় লোক দল এবং নিষাদ পার্টির মতো ছোটো দলগুলিকেও জোটে শামিল করাতে পারেন অখিলেশ এবং মায়াবতী। তবে কংগ্রেসের দুই মহীরুহ সনিয়া গান্ধীর কেন্দ্র রায়বরেলি এবং রাহুল গান্ধীর কেন্দ্র আমেঠিতে কোনো প্রার্থী দেওয়া হবে না বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন কংগ্রেসের বিক্ষোভ, কলকাতায় বন্ধ হল ‘দ্য অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’-এর শো

উল্লেখ্য, ২০১৪-এর লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশের ৮০টা আসনের মধ্যে ৭৪টাই জিতেছিল বিজেপি এবং তার ছোটো শরিক আপনা দল। সপা, বসপা, কংগ্রেস ধূলিসাৎ হয়ে গিয়েছিল। ২০১৭-এর বিধানসভা নির্বাচনে ক্ষমতা দখল করার জন্য কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করেন অখিলেশ। কিন্তু সেটাও চূড়ান্ত ব্যর্থ হয়। বিপুল জয় পেয়ে ক্ষমতা দখল করে বিজেপি।

কিন্তু গত বছর মার্চের উপনির্বাচনগুলি জানিয়ে দেয় সপা এবং বসপার জোট হলে উত্তরপ্রদেশে বিজেপিকে ধাক্কা দেওয়া সম্ভব। এমনটা ইঙ্গিত দিয়েছে বিভিন্ন সমীক্ষাও। সেই কথা মাথায় রেখেই কংগ্রেসকে সম্ভবত জোটের বাইরেই রাখতে চাইছেন এক কালের যুযুধান দুই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here