শুধুমাত্র বিয়ের জন্য ধর্ম পরিবর্তন করা ভুল, যোধা-আকবরের উদাহরণ তুলে বলল হাইকোর্ট

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: শুধুমাত্র বিয়ের জন্য প্রচুর ধর্মান্তরের ঘটনা নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এলাহাবাদ হাইকোর্ট। মুঘল সম্রাট আকবরের সঙ্গে যোধাবাইয়ের বিয়ের ঘটনা জুড়ে অপ্রয়োজনীয় ধর্মান্তর এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছে আদালত।

হাইকোর্ট বলেছে, আকবর এবং যোধাবাইয়ের বিয়ে থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে, ধর্ম পরিবর্তনের অপ্রয়োজনীয় ঘটনা এড়ানো যায়।

উত্তরপ্রদেশে ‘লাভ জিহাদ’ বিতর্ক ক্রমশ বাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে রাজ্যের এটা জেলায় বিয়ের জন্য ধর্মান্তরের একটি মামলার রায় ঘোষণায় আদালত বলে, ধোঁকা, লোভ এবং চাপ দিয়ে বিয়েটি হয়েছিল, তা ঠিক নয়।

কেন আকবর-যোধাবাইয়ের উদাহরণ?

আদালতের পর্যবেক্ষণে বলা হয়, এই ধরনের ধর্মান্তরে পুজোর পদ্ধতি পরিবর্তিত হয়, অথচ বিশেষ ধর্মে বিশ্বাস নেই। এই ধরনের ধর্মান্তরে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের পাশাপাশি দেশ ও সমাজেও খারাপ প্রভাব পড়ে। আদালত তার সিদ্ধান্তে বলেছে, বিয়ে করার জন্য মেয়েদের ধর্ম পরিবর্তন করা সম্পূর্ণ ভুল, কারণ ধর্ম পরিবর্তন না করেই বিয়ে করা যায়।

আদালত আর বলে, আকবর এবং যোধা বাই ধর্ম পরিবর্তন না করে একে অপরকে বিয়ে করেছিলেন। তাঁরা একে অপরকে সম্মান করতেন এবং তাঁদের ধর্ম ও উপাসনা ব্যবস্থাকেও সম্মান করতেন। ধর্ম তাঁদের বিবাহ এবং সম্পর্কের মধ্যে কখনো বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। আদালত বলেছে, আকবর এবং যোধা বাইয়ের সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল ধর্ম পরিবর্তন না করে। একে অপরের উপাসনার পদ্ধতিকে সম্মান জানিয়ে বিয়ে করার এটাই সর্বোত্তম উদাহরণ।

কী কারণে মামলা?

অভিযোগ, এটা জেলায় এক যুবতীকে প্রতারণা করে বিয়ের জন্য ধর্মান্তর করেছিলেন এক যুবক। ওই যুবকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়।

ভুক্তভোগী মেয়েটি ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে দেওয়া জবানবন্দিতে বলেছিলেন, ওই যুবক জালিয়াতি করে তাঁকে বুঝতে না পারা ভাষায় লেখা সাধারণ কাগজপত্র এবং নথিতে স্বাক্ষর করিয়ে ধর্মান্তরিত করেছেন। পরে বিয়ে হওয়ার তথ্য গোপন করেন, তাঁর উপর চাপ সৃষ্টি করেন এবং এ ভাবেই তাঁকে বিয়ে করেন। তিনি মোটেই ওই যুবকের সঙ্গে থাকতে চান না।

কী রায় দিয়েছে আদালত?

মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে ওই যুবককে গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয়। এর পরে তিনি জামিনের আবেদন নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। যা খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। এই মামলায় সাত পাতার রায়ে আদালত বলেছে, প্রত্যেকেরই যে কোনো ধর্ম এবং তার উপাসনা পদ্ধতিতে বিশ্বাস প্রকাশ করার অধিকার রয়েছে, কিন্তু ভয়-চাপ-লোভ এবং জালিয়াতি করে ধর্মান্তর ব্যক্তিগত জীবনের পাশাপাশি দেশ ও সমাজের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যা সমাজকে বিভেদের পথে চালিত করে।

আরও পড়তে পারেন: দেশ জুড়ে ধর্মান্তরণ বিরোধী আইন চালুর পরিকল্পনা নেই, বিতর্কের মধ্যে জানাল কেন্দ্র

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন