Connect with us

দেশ

ট্রাম্পের চোখে ‘গরিব ভারত’ ঢাকতে প্রাচীর তুলছে অহমেদাবাদ প্রশাসন

Published

on

ওয়েবডেস্ক: সর্দার বল্লভভাই পটেল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইন্দিরা ব্রিজের সংযোগস্থলের রাস্তার ধারে এখন জোরকদমে চলছে নির্মাণ কাজ। জানা গিয়েছে, ‘সৌন্দর্যায়নে’র এই কাজ হচ্ছে অহমেদাবাদ পুরসভার তরফে। ক’দিন বাদেই গুজরাত সফর করবেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে রোড শো করবেন। পথের পাশে ‘গরিব ভারত’-এর নমুনা বস্তি এলাকা ঢেকে ফেলতেই প্রাচীর নির্মাণ করা হচ্ছে বলে সংবাদে প্রকাশ।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, সৌন্দর্যায়নের জন্য প্রায় অর্ধ কিমির প্রাচীর তুলছে পুর প্রশাসন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুরসভার আধিকারিক জানিয়েছেন, “প্রায় ৬০০ মিটার দীর্ঘ একটি প্রাচীর গড়ে তোলা হচ্ছে। বস্তি এলাকা ঢাকতেই রাস্তার ধারের ওই প্রাচীর নির্মাণ চলছে”।

তিনি আর জানান, কয়েক দশকের পুরনো দেবসারণ এবং সরনিয়াভাস এলাকায় প্রায় শ’পাঁচেক কাঁচাবাড়ি রয়েছে। সেখানে প্রায় আড়াই হাজার মানুষের বাস। সেখানকার রাস্তা সংলগ্ন এলাকাগুলিতে গাছ লাগানোও হচ্ছে। সবরমতী নদীর ধার থেকে পূর্ণদৈর্ঘ্যের পামগাছ লাগানোর কাজ চলছে।

আগামী ২৪ এবং ২৫ ফেব্রুয়ারি দিল্লি ও গুজরাত সফর করবেন সস্ত্রীক মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি সর্দার বল্লভভাই পটেল আন্তর্জাতিক বিমানমন্দর থেকে মোতেরায় সর্দার পটেল স্টেডিয়াম পর্যন্ত রোড শোয়ে ট্রাম্পের অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

তবে বিদেশি অতিথি এলে এ রকমের চমকদার সৌন্দর্যায়নের ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগে জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবে শিনজো গুজরাতে এলে একই ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। বুধবার একটি ভিডিয়োয় দেখা যায় ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলছেন, মোদী তাঁকে বলেছেন, অভ্যর্থনা জানানোর জন্য এয়ারপোর্ট থেকে স্টেডিয়াম পর্যন্ত পাঁচ থেকে সাত লক্ষ মানুষের জমায়েত হবে। অন্য দিকে ট্রাম্পের রোড শো-য়ে আবার স্কুলগুলিকে বলা হয়েছে, ২৫ হাজারের মতো ছাত্র-ছাত্রীকে নিয়ে পথের পাশে দাঁড়িয়ে থাকতে।

দেশ

হরিয়ানায় আজ খুলল কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়, ত্রিপুরায় ৫ অক্টোবর খুলছে স্কুল

২১ সেপ্টেম্বর থেকে আংশিক ভাবে স্কুল খুলেছে দেশের ১০টি রাজ্য। পশ্চিমবঙ্গে কবে?

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: করোনা আতঙ্ককে সরিয়ে রেখে পরীক্ষামূলক ভাবে শনিবার থেকেই খুলে গেল হরিয়ানার কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়। অন্য দিকে আগামী ৫ অক্টোবর থেকে আংশিক ভাবে স্কুল খুলছে ত্রিপুরায়।

কেন্দ্রের সবুজ সংকেত পেয়ে গত ২১ সেপ্টেম্বর থেকে আংশিক ভাবে নবম-দশম শ্রেণির জন্য শর্তসাপেক্ষ স্কুল খুলেছে দেশের একাধিক রাজ্য। যেগুলির মধ্যে রয়েছে হরিয়ানা। আজ থেকে হরিয়ানায় কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলিও পরীক্ষামূলক ভাবে খুলে গেল।

মেনে চলতে হবে স্বাস্থ্যবিধি এবং নির্ঘণ্ট

হরিয়ানা রাজ্য সরকারের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পড়ুয়ারা শিক্ষকদের কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়ার জন্য সশরীরে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে পারবেন। তবে এর জন্য নির্দিষ্ট স্বাস্থ্যবিধি এবং নির্ঘণ্ট মেনে চলতে হবে।

যেমন, প্রথমবর্ষের বিএ পড়ুয়ারা সোমবার এবং মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টা থেকে বেলা সাড়ে ৩টে পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেতে পারবেন। অন্য দিকে প্রথমবর্ষের বিকম এবং বিএসসি পড়ুয়ারা বুধবার এবং বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে বেলা ১২টা, ইত্যাদি।

ত্রিপুরায় আংশিক ভাবে খুলছে স্কুল

শুক্রবার ত্রিপুরা সরকার ঘোষণা করে আগামী ৫ অক্টোবর থেকে একাদশ এবং দ্বাদশশ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য ফের স্কুল চালু করা হবে।

এ ব্যাপারে ত্রিপুরার শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ বলেন, অভিভাবকের কাছে লিখিত সম্মতি নিয়ে পড়ুয়ারা স্কুলে যেতে পারে।

তিনি বলেন, “শিক্ষা মন্ত্রক ২১ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুলগুলি পুনরায় চালু করার জন্য স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতি (এসওপি)-সহ বিশদ একটি নির্দেশিকা জারি করেছিল। সারা দেশে এখনও পর্যন্ত ১০টি রাজ্য ইতিমধ্যে পুনরায় স্কুল চালু করেছে। আমরাও উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে আবার স্কুল চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি”।

পশ্চিমবঙ্গে কী পরিস্থিতি?

পরিস্থিতি স্বাভাবিক না-হলে এ রাজ্যে স্কুল-কলেজ খোলা হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে রাজ্য। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় গত সপ্তাহে জানান, “করোনা হুহু করে বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে কোনো ভাবেই এখন স্কুল খোলার কথা ভাবা যাবে না”।

তিনি বলেন, তাঁরা ছেলেমেয়েদের স্বাস্থ্য নিয়েই বেশি উদ্বিগ্ন। তবে পড়ুয়াদের কাছে কী করে পৌঁছনো যায়, কী ভাবে চালু রাখা যায় পড়াশোনা, সেগুলি দেখা দরকার। এবং তাঁরা সেটা দেখছেনও।

তবে সম্প্রতি একটি সূত্রের খবর, আগামী নভেম্বর মাসে ফের স্কুল খোলার উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। তবে সরকারি ভাবে এ বিষয়ে কোনো ঘোষণা এখনও পর্যন্ত করা হয়নি। অন্য দিকে একটি অনলাইন সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, কলকাতার সিংহভাগ অভিভাবক চাইছেন না এখনই স্কুল খুলুক।

আরও পড়তে পারেন: স্কুল খোলার আগে নিজের সন্তানকে এই ৫টি তথ্য অবশ্যই জানাবেন

Continue Reading

দেশ

মাদক মামলায় জেরার মুখোমুখি হতে এনসিবির দফতরে দীপিকা পাড়ুকোন

দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশকেও এ দিন ফের জেরা করা হতে পারে।

Published

on

deepika padukone
স্বামী রনবীর সিংহকে ছাড়াই এ দিন এনসিবির দফতরে যান দীপিকা।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: খুন না কি আত্মহত্যা, এই মর্মে শুরু হয়েছিল তদন্ত। তার মোড় এখন পুরোপুরি ঘুরে গিয়েছে মাদকের দিকে। ‘কে গাঁজা খায় তাকে খুঁজে বার করো’-ই যেন এখন প্রাধান্য পেতে শুরু করেছে।

সেই মাদক মামলায় জেরার মুখোমুখি হতে মুম্বইয়ে নার্কোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) দফতরে পৌঁছোলেন অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন (Deepika Padukone)। সুশান্ত সিংহ রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) হত্যার তদন্তে যে মাদক-যোগ ধরা পড়ে, তাতে দীপিকার নামও উঠে এসেছে। তার জন্য অভিনেত্রীকে সমন পাঠিয়েছিল এনসিবি।

মুম্বইয়ের কোলাবায় অ্যাপালো বন্দরের এভলিন গেস্ট হাউসে জেরা করা হচ্ছে দীপিকাকে। এ দিন সকালেই সেখানে পৌঁছে যান তিনি। তবে তাঁর স্বামী রণবীর সিংহকে দীপিকার সঙ্গে দেখা যায়নি।

ওই একই মামলায় এ দিন এনসিবির দফতরে হাজিরা দেওয়ার কথা অন্য দুই অভিনেত্রী সারা আলি খান এবং শ্রদ্ধা কপূরেরও। তাঁদের বাল্যার্ড এস্টেটে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানা গিয়েছে। 

দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশকেও এ দিন ফের জেরা করা হতে পারে। শুক্রবার টানা চার ঘণ্টা তাঁকে জেরা করেন তদন্তকারীরা। মাদক মামলায় নাম উঠে এসেছে আর এক অভিনেত্রী রাকুল প্রীত সিংহেরও। গাঁজা কেনা এবং তা সেবন নিয়ে হোয়াটঅ্যাপে তাঁর কথোপকথন তদন্তকারীদের হাতে এসেছে বলে জানা গিয়েছে। সেই নিয়ে গতকাল জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁকেও।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

কোভিডের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর এই প্রথম ভারতে ‘আর নম্বর’ নামল ১-এর নীচে

Continue Reading

দেশ

কোভিডের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর এই প্রথম ভারতে ‘আর নম্বর’ নামল ১-এর নীচে

‘আর নম্বর’ হল সংক্রমণের হার মাপার একটি গাণিতিক হিসেব। এক জন করোনা রোগী কত জন সুস্থ মানুষকে সংক্রমিত করছেন আর সেই সংখ্যার হিসেবে হার কতটা বাড়ছে, সেটাই হিসেব হয় এই নম্বরটি দিয়ে।

Published

on

coronavirus
সব থেকে বেশি প্রভাবিত রাজ্যগুলিতে 'আর নম্বর' ১-এর নীচে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত এক সপ্তাহ ধরে ভারতে দৈনিক কোভিড-আক্রান্তের সংখ্যাকে ছাপিয়ে যাচ্ছে সুস্থ হওয়া মানুষের সংখ্যা। সেটাই এ বার প্রতিফলিত হল করোনার ‘আর নম্বর’ (R Number)-এ। ভারতে গত মার্চ থেকে কোভিডে (Covid 19) বাড়বাড়ন্ত শুরু হওয়ার পর এই প্রথম বার আর নম্বরটি ১-এর নীচে নেমেছে।

বর্তমানে ভারতে ‘আর নম্বর’ নেমেছে ০.৯৩-তে। গত সপ্তাহে এই নম্বরটি ছিল ১.০৮। এমনই জানিয়েছন চেন্নাইয়ের ইন্সটিটিউট অব ম্যাথামেটিকাল সায়ান্সেসের (আইএমএস) গবেষক অধ্যাপক সীতভ্র সিনহা।

এই প্রসঙ্গেই অধ্যাপক সিনহা বলেন, “আমরা এখনও নতুন সংক্রমণ দেখব। কিন্তু এই মুহূর্তে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল যে সুস্থতার সংখ্যা, নতুন আক্রান্তের সংখ্যার থেকে বেশি। এই ‘আর নম্বর’ যদি ১-এর নীচে থাকে তা হলে কোভিডে সংক্রমণ ধীরে ধীরে শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু এখন সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল অনেকটা সময় ধরে এই নম্বরটাকে ১-এর নীচে আটকে রাখা।”

এই আর নম্বরটি আদতে কী?

এটি হল সংক্রমণের হার মাপার একটি গাণিতিক হিসেব। এক জন করোনা রোগী কত জন সুস্থ মানুষকে সংক্রমিত করছেন আর সেই সংখ্যার হিসেবে হার কতটা বাড়ছে, সেটাই হিসেব হয় এই নম্বরটি দিয়ে।

এই ‘আর নম্বর’টি তিনটে ফ্যাক্টরের ওপরে নির্ভর করে। প্রথমত, এক জন করোনা পজিটিভ রোগীর মধ্যে দিয়ে অন্য জনে সংক্রমণ ছড়িয়ে যাওয়ার ঝুঁকি কতটা, দ্বিতীয়ত, আক্রান্ত ও সংক্রমণের সন্দেহে থাকা ব্যক্তিরা কত জনের সংস্পর্শে আসছেন তার গড় হিসেব, তৃতীয়ত, এক জনের থেকে সংক্রমণ কত জনের মধ্যে এবং কত দিনে ছড়াচ্ছে তার গড় হিসেব।

‘আর নম্বর’ ১-এর নীচে চলে আসা মানে করোনার ওপরে নিয়ন্ত্রণ আসা, এমনটা মনে করেন গবেষকরা। তাঁদের দাবি, এমনটা হলে একজন সংক্রমিত ব্যক্তির থেকে একজন সুস্থ ব্যক্তির সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না।

সব থেকে বেশি প্রভাবিত রাজ্যগুলিতে ‘আর নম্বর’ ১-এর নীচে

ভারতে কোভিডে দাপট যে পাঁচটা রাজ্যে সব থেকে বেশি, সেই সব রাজ্যেই ‘আর নম্বর’ কমেছে ১-এর নীচে। মহারাষ্ট্রে এই নম্বরটি বর্তমানে ০.৮৬ শতাংশে মহারাষ্ট্রে বর্তমানে ‘আর নম্বর’ নেমে এসেছে ০.৮৬-এ। গত সপ্তাহেই সেটা ছিল ১.১৭। কর্নাটকে গত এক সপ্তাহে ‘আর নম্বর’ ১.১৩ থেকে কমে হয়েছে ০.৯১।

অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু আর উত্তরপ্রদেশে ‘আর নম্বর’ যথাক্রমে রয়েছে ০.৯৫, ০.৯৯ এবং ০.৯৩।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

দেশে ফের নতুন আক্রান্তের সংখ্যাকে ছাপাল সুস্থতা, সংক্রমণের হারেও কমছে ধীরে ধীরে

Continue Reading
Advertisement
mike ryan
বিদেশ20 mins ago

করোনায় আরও ১০ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হতে পারে, উদ্বেগের কথা শোনাল ‘হু’

প্রবন্ধ21 mins ago

প্রগতিশীল সামাজিক-রাজনৈতিক সাংবাদিকতার অন্যতম প্রবর্তক ও পথপ্রদর্শক ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর

কলকাতা1 hour ago

বিধানসভায় বিদ্যাসাগরের জন্মদিন উদ্‌যাপন

দেশ2 hours ago

হরিয়ানায় আজ খুলল কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়, ত্রিপুরায় ৫ অক্টোবর খুলছে স্কুল

paytm train ticket booking
প্রযুক্তি2 hours ago

পেটিএমে কী ভাবে ট্রেনের টিকিট কাটবেন?

দুর্গা পার্বণ4 hours ago

পশ্চিম বর্ধমানের খান্দরার বকশিবাড়ি বৈষ্ণবধারার হলেও পুজোয় বলিদান হয় দেবীরই আদেশে

বিজ্ঞান5 hours ago

কোভিড ভ্যাকসিন: প্রারম্ভিক পরীক্ষায় উতরে গেল জনসন অ্যান্ড জনসন

গ্রেবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইক
পরিবেশ5 hours ago

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে নৈহাটিতে ফ্রাইডে ফর ফিউচারের প্রতীকী ধর্মঘট

কেনাকাটা

কেনাকাটা18 hours ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা2 days ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা4 days ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 week ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা1 week ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা3 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা3 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা1 month ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

নজরে