chandrababu naydu
চন্দ্রবাবু নায়ডু। ছবি সৌজন্যে মিরচি৯.কম।

ওয়েবডেস্ক: ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে ‘ভবিষ্যৎ প্রধানমন্ত্রী’ হিসাবে কাউকে তুলে না ধরলেও ক্ষতি নেই, বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ-র বিকল্প বিরোধী ‘স্বতঃস্ফূর্ত’ ভাবে বেরিয়ে আসবে – এমনই মনে করেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা তেলুগু দেশম নেতা চন্দ্রবাবু নায়ডু। সমস্ত বিরোধী দলকে এক জায়গায় এনে একটা যুক্ত ফ্রন্ট গড়ে তোলার ব্যাপারে তিনি ‘গুরুত্বপূর্ণ’ ভূমিকা পালন করতে প্রস্তুত বলে জানিয়ে দেন চন্দ্রবাবু। উল্লেখ্য, কেন্দ্র তাঁর রাজ্য অন্ধ্রকে বিশেষ মর্যাদা দিতে রাজি না হওয়ায় চলতি বছরের গোড়ায় চন্দ্রবাবু এনডিএ ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

পিটিআইকে এক সাক্ষাৎকারে চন্দ্রবাবু বলেন, “মানুষ মোদী সরকারের উপর খেপে আছে। তারা একটা বিকল্প বেছে নেবেই। স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে সেই বিকল্প বেরিয়ে আসবে।”

আরও পড়ুন গায়েব ৩.৩১ লক্ষ কোটি টাকা! কতটা দায়ী মোদীর আইএল অ্যান্ড এফএস নিয়ে সিদ্ধান্ত?

নায়ডু মনে করেন, ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে বিরোধী ফ্রন্ট যদি কাউকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে তুলে না-ও ধরে, তাতেও তার সম্ভাবনায় কোনো ক্ষতি হবে না।

“ভোটের আগে বিরোধী ফ্রন্ট যদি কাউকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে তুলে না ধরে, তাতে কোনো সমস্যা হবে বলে আমি মনে করি না। দায়িত্বশীল নাগরিক হিসাবে আমি কাজ করে যাব। দায়িত্বশীল নাগরিক হিসাবে আমি আমার ভূমিকা অবশ্যই পালন করব। জাতির স্বার্থে যে সব দল এক সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী তাদের এক জায়গায় আনার ব্যাপারে আমরা সহায়কের কাজ করতে পারি।”

চন্দ্রবাবু জানান, বিরোধী জোট গড়ার ব্যাপারে বিভিন্ন দলের সঙ্গে আলোচনা চলছে। অতি সম্প্রতি কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। এ ব্যাপারে চন্দ্রবাবু আর বিস্তারিত কিছু বলেননি।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন