ঋণে জর্জরিত রিলায়্যান্স সংস্থার ডিরেক্টরের পদ থেকে ইস্তফা অনিল অম্বানির

0

ওয়েবডেস্ক: রিলায়্যান্স কমিউনিকেশন্স থেকে ইস্তফা নিলেন অনিল অম্বানি। ঋণের দায় জর্জরিত হয়েই ডিরেক্টর পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন তিনি।

শনিবার সংস্থার তরফে একথা জানানো হয়েছে। অনিল আম্বানির ছাড়াও ছায়া ভিরানি, রায়না কারানি, মঞ্জরি ক্যাকার এবং সুরেশ রাঙ্গাচাররাও সংস্থার ডিরেক্টর পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন।

সংস্থার তরফে প্রকাশিত বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “আগেই সংস্থার ডিরেক্টর এবং মুখ্য আর্থিক আধিকারিক পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন মণিকান্থন ভি। ইস্তফাপত্রগুলি অনুমোদনের জন্য ঋণদাতাদের কমিটির কাছে পেশ করা হবে।”

উল্লেখ্য, বিপুল ব্যবসায়িক ক্ষতির জেরে দেউলিয়া অবস্থা রিলায়্যান্স কমিউনিকেশন্সের। ২০১৯ সালের জুলাই-সেপ্টেম্বর ত্রৈমাসিকে সংস্থার মোট লোকসানের পরিমাণ ছিল ₹৩০,১৪২ কোটি টাকা।

বেশ কয়েক বছর আগে থেকেই মার খেতে শুরু করে অনিল অম্বানির সংস্থার ব্যবসা। এই করুণ অবস্থায় শেষ পেরেকটা পোঁতা হয়ে যায় বছর তিনেক আগে রিলায়্যান্সে জিও প্রবেশের পর থেকে।

তীব্র লোকসানের ধাক্কায় এক সময় নিজেদের ওয়ারলেস ব্যাবসা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছে অনিল আম্বানীর মালিকানাধীন সংস্থাটি। ২০১৭ সালের মার্চে শেষবার নিজেদের ঋণ সংক্রান্ত তথ্য জনসমক্ষে এনেছিল তারা। সে সময় ঋণের পরিমাণ ছিল ৭০০ কোটি মার্কিন ডলার। এ ছাড়া ভেন্ডাররা তাদের থেকে বড় অংকের অর্থ পায়।

বর্তমানে এই সংস্থাকে সরকারি ভাবে দেউলিয়া ঘোষণা করার প্রক্রিয়া চলছে।

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.