rape protest

ওয়েবডেস্ক: উন্নাওয়ের পর এ বার বরেলি। ফের বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনলেন এক তরুণী। নাবালিকা থাকাকালীন তাঁকে লাগাতার ধর্ষণ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ ওই মহিলার।

বরেলির পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ জানিয়ে ওই তরুণী বলেন, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁকে দু’বছর ধরে ধর্ষণে করেছেন বদায়ুঁর বিধায়ক কুশাগ্রা সাগর। ২০১২ থেকে তাঁর ওপরে এই নির্যাতন চালানো হয়েছিল বলে তরুণী জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “আমার পরিবার খুব গরিব। আমার বাবা বেকার। মা পরিচারিকার কাজ করেন। ২০১২-তে আমার বয়স যখন ১৬, মা আমাকে সাগরের বাড়িতে নিয়ে যেতেন। তখন থেকেই আমার ওপর শারীরিক নির্যাতন চালিয়েছেন সাগর। আমাকে বিয়ের করারও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। ২০১৪ পর্যন্ত একাধিকবার আমাকে ধর্ষণ করা হয়।”

আগামী ১৭ জুন বিয়ে হওয়ার কথা সাগরের। তার আগেই ধর্ষণের এই অভিযোগ করলেন তরুণী। তাঁর অভিযোগ, “একদিন সাগর আমাকে বিয়ে করবেন এই আশায় সব কিছু সহ্য করেছি। কিন্তু এখন তিনি বলছেন পুলিশে অভিযোগ জানালে আমার পরিবারকে মেরে ফেলা হবে।” গোটা ঘটনায় তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ সুপার।

যদিও এই সব অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়েছেন সাগর। রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের চক্রান্ত বলে গোটা ঘটনাকে আখ্যা দিয়েছেন তিনি। তাঁর কথায়, “২০১৪-তেও পুলিশে অভিযোগ জানিয়েছিলেন ওই মহিলা। আমার থেকে দশ লক্ষ টাকা আদায়ও করেন তিনি। আমি বিয়ে করছি জেনেই আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করছেন তিনি।” তদন্ত হলে পুলিশকে সব রকম সহযোগিতার আশ্বাসও সাগর দিয়েছেন।

কিছু দিন আগেই বিজেপির আরও এক বিধায়ক কুলদীপ সিংহ শেনগারকে গ্রেফতার করেছে সিবিআই। তার ঠিক পরেই ধর্ষণের আরও এক অভিযোগে যোগী আদিত্যনাথের কপালে ঘামের বিন্দু যে বাড়বে তা বলায় বাহুল্য।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here