winter session of parliament
সংসদ। প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: শুক্রবার লোকসভায় পাস হল ‘ভারতীয় অ্যান্টার্কটিক বিল, ২০২২’ (Indian Antarctic Bill, 2022)। গত ১ এপ্রিল সংসদের নিম্নকক্ষে এই বিল পেশ করেছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিংহ। অ্যান্টার্কটিকার পরিবেশ, নির্ভরশীলতা এবং সংশ্লিষ্ট বাস্তুতন্ত্র রক্ষার জন্য ভারতের নিজস্ব জাতীয় ব্যবস্থা সমন্বিত হয়েছে এই বিলে।

অ্যান্টার্কটিকা (Antarctica) হল পৃথিবীর দক্ষিণতম মহাদেশ। বিভিন্ন দেশ সেখানে গবেষণা চালানোর জন্য নিজেদের কেন্দ্র গড়ে তুলেছে। গবেষণার জন্য দু’টি স্টেশন স্থাপন করেছে ভারতও। একটি শিরমাচার পাহাড়ে মৈত্রী এবং অন্যটি লারসেম্যান পাহাড়ে ভারতী।

অ্যান্টার্কটিক চুক্তি

বলে রাখা ভালো, ১৯৫৯ সালের ১ ডিসেম্বর অ্যান্টার্কটিক চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছিল বিশ্বের ১২টি দেশ। সে সময় অবশ্য ভারত ছিল না ওই চুক্তিতে। তবে পরে, ১৯৮৩ সালের ১৯ আগস্ট ওই চুক্তিতে স্বাক্ষর করে ভারত।

চুক্তির উদ্দেশ্যগুলি হল অ্যান্টার্কটিকাকে সামরিক মুক্ত রেখে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে গবেষণার কাজ চালিয়ে যাওয়ার একটি অঞ্চল হিসাবে প্রতিষ্ঠা করা। পাশাপাশি আঞ্চলিক সার্বভৌমত্ব সম্পর্কিত যে কোনো বিরোধকে দূরে সরিয়ে দেওয়ার লক্ষ্য জোরদার করা হয়েছে ওই চুক্তিতে।

কেন এই বিল?

কেন্দ্র বলেছে, মানুষের যাতায়াত বাড়ছে। ফলে অ্যান্টার্কটিকায় সামুদ্রিক জীবসম্পদ এবং মহাদেশের চারপাশে আদি অ্যান্টার্কটিক পরিবেশ এবং মহাসাগর সংরক্ষণের বিষয়ে উদ্বেগ বাড়ছে।

নিয়মিত অ্যান্টার্কটিক অভিযানের আয়োজন করে ভারত। দেশ থেকে অনেক মানুষ পর্যটক হিসাবে প্রতি বছর অ্যান্টার্কটিকায় যান। ভবিষ্যতে, বেসরকারি জাহাজ এবং বিমান শিল্পও সেখানে যাতায়াত শুরু করবে। এতে অ্যান্টার্কটিকায় পর্যটন এবং মাছ ধরার উৎসাহ বাড়তে পারে। যা নিয়ন্ত্রণ করা দরকার।

তবে অ্যান্টার্কটিক চুক্তির সদস্য হিসাবে সেখানে ভারতীয় বিজ্ঞানীদের উপস্থিতি কোনো অন্তরায় সৃষ্টি করবে না। যে কারণে অ্যান্টার্কটিকায় ভারতীয়দের অভিযান সংশ্লিষ্ট পক্ষের লিখিত অনুমোদন ছাড়া নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব রাখা হয়েছে ওই বিলে। পাশাপাশি অ্যান্টার্কটিক গবেষণায় এবং অ্যান্টার্কটিক পরিবেশ সুরক্ষার জন্য তহবিল গঠনের কথাও বলা হয়েছে।

কেন্দ্র জানিয়েছে, পরিবেশ ছাড়াও, অ্যান্টার্কটিক চুক্তি, কনভেনশন অব দ্য কনজারভেশন অব অ্যান্টার্কটিক মেরিন লিভিং রিসোর্সেস কনভেনশন (CCAMLR) এবং অ্যান্টার্কটিক চুক্তির (মাদ্রিদ প্রোটোকল) শর্ত মেনে পরিবেশ সুরক্ষার নীতি কার্যকর করতেই বিলটি আনা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন:

চলতি অর্থবর্ষের প্রথম ত্রৈমাসিকে ব্যবসায়িক উন্নতি বন্ধন ব্যাঙ্কের, গ্রাহক সংখ্যা বেড়ে ২.৬৯ কোটি

‘বৃষ্টির জন্য ছাতা কিনুন’, ডলারের তুলনায় টাকার দামে অভূতপূর্ব পতন নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য আরবিআই গভর্নরের

উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দেবে না তৃণমূল, মান ভাঙাতে নামলেন বিরোধী প্রার্থী মার্গারেট আলভা!

মণীশ সিসৌদিয়ার বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের সুপারিশ, ক্ষুব্ধ কেজরিওয়াল বললেন ‘সভরকরের বাচ্চাদের ভয় পাই না’

বিক্ষোভ দমনে নামলেন শ্রীলঙ্কার নতুন প্রেসিডেন্টও, প্রতিবাদীদের ক্যাম্প গুঁড়িয়ে দিল সেনা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন