বালাকোটের জইশ শিবির নিয়ে ধন্দ কাটালেন সেনাপ্রধান

0
ফাইল ছবি

চেন্নাই: বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে কয়েক দিন আগেই রিপোর্ট করা হয়েছিল যে পাকিস্তানের বালাকোটে জইশ-ই-মহম্মদ শিবিরটি নতুন করে সক্রিয় হয়ে উঠেছে। সেই রিপোর্টগুলির সত্যতা স্বীকার করে নিলেন সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। জানিয়ে দিলেন, সত্যিই ওই শিবির সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তবে সেই সঙ্গে মানুষকে বেশি চিন্তিত না হওয়ার ব্যাপারেও আশ্বস্ত করেছেন তিনি।

সোমবার চেন্নাইয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাওয়াত বলেন, “কিছু দিন আগেই বালাকোট পুনরায় সক্রিয় হয়ে উঠেছে। এটা প্রমাণ করে যে ওই শিবিরে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল। ফলে বায়ুসেনা যে সত্যিই তাদের কাজে সফল হয় সেটা প্রমাণিত।”

এ দিন তাঁর বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে ইসলাম ধর্ম নিয়েও ভুলভ্রান্তি দূর করার বার্তা দেন রাওয়াত। তিনি বলেন, “ইসলাম ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা করছে কয়েক জন মুষ্টিমেয় লোক। তারাই মানুষের মধ্যে সেই ভুল বার্তা ছড়িয়ে দিতে চাইছে। এখন এমন যাজক প্রয়োজন যাঁরা ইসলামের প্রকৃত অর্থ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দেবেন।”

আরও পড়ুন তিহাড়ে চিদাম্বরমের সঙ্গে দেখা করলেন সনিয়া, মনমোহন, দিলেন বিশেষ বার্তাও

কাশ্মীরের পরিস্থিতি এখন আগের থেকে অনেকটাই ভালো বলে মন্তব্য করেন সেনাপ্রধান। যোগাযোগ ব্যবস্থাকে বন্ধ করে আদতে লাভ হয়েছে বলেও জানান তিনি। তাঁর কথায়, “কাশ্মীর উপত্যকার জঙ্গিদের সঙ্গে পাকিস্তানে উপস্থিত তাদের ওপর মহলের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করা গিয়েছে। কিন্তু কাশ্মীরের সাধারণ মানুষের মধ্যে কোনো যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়নি।”

নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর পাকিস্তান যে বার বার জঙ্গি ঢোকানোর চেষ্টা করে চলেছে সে কথা ফের একবার বলেন রাওয়াত। তবে সেই সঙ্গে তাঁর আশ্বাস, “আমাদের জওয়ানরা সব সময় প্রস্তুত। সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করা হলে কী ব্যবস্থা নিতে হয় বা জঙ্গিরা অনুপ্রবেশ করলে কী ব্যবহার করতে হয় তা আমরা জানি।”

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন