কাশ্মীরে সেনা অফিসারকে বিয়েবাড়ি থেকে অপহরণ করে খুন করল জঙ্গিরা

0

শ্রীনগর: পারিবারিক বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে অপহরণ করে এক সেনা অফিসারকে খুন করল জঙ্গিরা। উমর ফৈয়াজ (২২) নামে ওই সেনা অধিকারিক মাত্র পাঁচ মাস আগে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। সোপিয়ান থেকে তাঁর গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার হয়েছে।

মঙ্গলবার কাশ্মীরেরই বাসিন্দা লেফট্যান্ট উমর দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম জেলার একটি গ্রামে খুড়তুতো বোনের বিয়েতে যোগ দিতে এসেছিলেন। রাত দশটা নাগাদ বিয়েবাড়ি থেকেই তাঁকে অপহরণ করে জঙ্গিরা। পরিবারের সদস্যরা উমরকে খুঁজে না পেয়ে সেনাবাহিনীতে খবর দেয়। এর পর সোপিয়ান থেকে উমরের গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার হয়। তাঁর মাথায় ও পেটে গুলির চিহ্ন পাওয়া গিয়েছে।

এক সেনা আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘‘উমর খুবই প্রাণচঞ্চল ছেলে ছিল। ডিসেম্বর মাসেই সে সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়।’’ ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমির ছাত্র উমর জানত যে সে যেখানে যাচ্ছে সেখানে বিপদ রয়েছে, ‘‘তা সত্ত্বেও সে কোনো অস্ত্র ছাড়াই বিয়ের অনুষ্ঠানে যায়।’’

সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার পর সেনা কর্তৃপক্ষের কপালে ভাঁজ পড়েছে। জঙ্গিরা ছুটিতে থাকা সেনাকর্মীদের যে ভাবে টার্গেট করেছে তা নিয়ে রীতিমতো চিন্তিত সেনাবাহিনীর আধিকারিকরা।

সম্প্রতি রাজ্য পুলিশের একটি উপদেষ্টা কমিটি থেকে আবেদন করা হয়েছে, দক্ষিণ কাশ্মীরে কোনো সেনা আধিকারিকের পারিবারিক বাড়ি থাকলে সেখানে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। এছাড়া পুলুমা, সোপিয়ান, অনন্তনাগ এবং কুলগামে জঙ্গিদের কার্যকলাপ বেড়েছে, তা নিয়েও সেনাকে সর্তক করেছে রাজ্য পুলিশ। জঙ্গিদের প্রতি স্থানীয় মানুষদের সমর্থন রয়েছে, অনেক সময় তারাই জঙ্গিদের আশ্রয় দিচ্ছে। এর ফলে ওই সমস্ত এলাকায় জঙ্গিদের ধরা বেশ কঠিন ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। গত বৃস্পতিবারই জঙ্গির খোঁজে তল্লাশি করতে গিয়ে সোপিয়ানে নিরাপত্তাকর্মীরা স্থানীয় বাসিন্দাদের বাধার মুখে পড়ে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here