কুপওয়ারা: ভোরে সেনা ছাউনিতে জঙ্গি হানায় মৃত্যু হয়েছে ৩ জওয়ানের। আহত হয়েছেন ৫ জওয়ান। পাল্টা গুলিতে নিহত হয়েছে ২ জঙ্গিও। ঘটনার পর জঙ্গি বিরোধী অভিযানে বেরোয় সেনাবাহিনী। সামনে সাম্প্রতিক কালের কাশ্মীরের চেনা ছবি। সেনাবাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর ছুঁড়তে থাকে জনতা। জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে গুলি ছোঁড়ে সেনাও। গুলিতে মৃত্যু হয়েছে ৭০ বছর বয়সি এক বৃদ্ধের।

আরও পড়ুন: উরির ধাঁচে কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় অফিসার সহ মৃত ৩ সেনা, মৃত ২ জঙ্গিও

জঙ্গি-সেনা লড়াইয়ে ২ জঙ্গির মৃত্যু হওয়ার পর ঘটনাস্থল থেকে তিনটি একে ৪৭ উদ্ধার করে সেনা। তাতে মনে করা হয়, আরও এক জঙ্গি কাছাকাছি কোথাও লুকিয়ে আছে। ওই জঙ্গির তল্লাশিতেই বেরিয়েছিল সেনা। অন্যদিকে সাধারণ মানুষের দাবি মৃত দুই জঙ্গির দেহ তাঁদের হাতে তুলে দিতে হবে।

অন্যদিকে বুধবার গভীর রাতে শ্রীনগর গ্রেফতার করা হল হুরিয়ত-সদস্যা আসিয়া আন্দ্রাবিকে। আন্দ্রাবি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন দুখতারন-ই-মিল্লাতের প্রতিষ্ঠাতা। স্টেশন হাউস অফিসার সহ বিশাল পুলিশবাহিনী সৌরা এলাকায় আন্দ্রাবির বাড়ি ঘিরে ফেলে তাঁকে গ্রেফতার করে। যে সব বিষয়কে আন্দ্রাবি এবং জামাত-উদ-দাওয়া নেতা হাফিজ সইদ অ-ইসলামি মনে করেন, সেগুলি নিয়ে ফতোয়া দেয় দুখতারন-ই-মিল্লাত। আন্দ্রাবির স্বামী হিজবুল মুজাহিদিন নেতা আশিক হুসেন ফাক্তু এখন জেলবন্দি। খবরে জানা গিয়েছে, কয়েক জন ধরা পড়া জঙ্গি কবুল করেছে, আন্দ্রাবির বক্তৃতার ভিডিও নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর কয়েকটি জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবিরে দেখানো হয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here