খবর অনলাইন ডেস্ক: উত্তরাখণ্ড বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে রবিবার কার্যত ভোটপ্রচার শুরু করে দিলেন আম আদমি পার্টি (আপ)-র প্রধান এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। এ দিন দেরহাদুনে পৌঁছে বিদ্যুৎ সংক্রান্ত চারটি বড়োসড়ো প্রতিশ্রুতি দিলেন তিনি।

কেজরিওয়ালের চার গ্যারান্টি

২০২২-এ বিধানসভা ভোট উত্তরাখণ্ডে। পঞ্জাবের পর এ বার পাহাড়ি রাজ্যে কেজরিওয়াল। আগামী বছরের ভোটের আগে এ দিন তিনি রাজ্যের মানুষের জন্য চারটি প্রতিশ্রুতি দিলেন।

প্রথমত, উত্তরাখণ্ডে আপ সরকার গঠন হলে ৩০০ ইউনিট পর্যন্ত বিনামূল্যে বিদ্যুৎ, দ্বিতীয়ত কৃষকদের জন্য বিনামূল্যে বিদ্যুৎ, তৃতীয়ত বকেয়া বিল মকুব এবং চতুর্থত দিনের ২৪ ঘণ্টা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ।

একই সঙ্গে কেজরিওয়াল প্রশ্ন ছুড়ে দেন, বিজেপি, কংগ্রেস- দুই দলই এখানে শুধু কুর্সির জন্য লড়াই চালিয়ে গিয়েছে। উত্তরাখণ্ডের মানুষের উন্নয়নের কথা কে ভাববে?

কেন বিনামূল্যে পাবে না উত্তরাখণ্ড

ইতিমধ্যেই জানা গিয়েছে, উত্তরাখণ্ডের বিধানসভা ভোটে প্রার্থী দেবে আপ। গত শনিবার-ই তিনি উত্তরাখণ্ডের বাসিন্দাদের বিনামূল্যে বিদ্যুৎ পরিষেবা পাওয়ার ব্যাপারে জোর সওয়াল করেছিলেন কেজরিওয়াল।

তিনি বলেন, “উত্তরাখণ্ড বিদ্যুৎ উৎপাদন করে, অন্য রাজ্যকে বিক্রি করে। তা হলে সেই রাজ্যেই কেন এত চড়া দাম বিদ্যুতের? দিল্লি মোটেই নিজে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে না। যে কারণে চাহিদা মেটাতে অন্য রাজ্য থেকে বিদ্যুৎ কেনে। তবুও সেখানকার মানুষ বিনামূল্যে বিদ্যুৎ পাচ্ছেন। উত্তরাখণ্ডের মানুষ তা হলে কেন পাবেন না”?

কেজরিওয়ালের বিদ্যুৎ-অস্ত্র

মাসে বিদ্যুতের বিলে ২০০ ইউনিট হলে পুরোটাই ছাড় পান দিল্লিবাসীর। কোনো পয়সাই দিতে হয় না। আর বিল যদি থাকে ২০১ থেকে ৪০০-র মধ্যে, তা হলেও এখন ইউনিট-পিছু যে দামে বিদ্যুৎ কিনতে হয় দিল্লির নাগরিকদের, সেটাও অর্ধেক হয়ে গিয়েছে। কারণ, বাকি ৫০ শতাংশ ভর্তুকি দেয় দিল্লি সরকার।

বিধানসভা ভোট হতে চলেছে পঞ্জাবেও। কয়েক দিন আগেই সেখানকার ভোটারদের কাছেও কেজরিওয়াল প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, ক্ষমতায় এলে সর্বক্ষণের জন্য বিনামূল্যে বিদ্যুৎ সরবরাহের পাশাপাশি পঞ্জাবের প্রতিটি পরিবারকে ৩০০ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুতের খরচ দিতে হবে না। সেই সঙ্গে আগের বকেয়া বিলও মাফ করা হবে।

আরও পড়তে পারেন: স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডে ব্যাপক সাড়া! ১০ দিনে আবেদন প্রায় ২৬ হাজার

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন