নয়াদিল্লি: কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে আগামী বুধবার রাজধানীতে আপের তরফে আয়োজিত হচ্ছে ‘তানাশাহি হঠাও, লোকতন্ত্র বাঁচাও’ কর্মসূচি। ওই জনসভাতেই অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানাল হল কংগ্রেস সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধীকে।

আগামী লোকসভা ভোটকে পাখির চোখ করে মহাজোট গঠনে বিজেপি-বিরোধী প্রায় সমস্ত রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে কংগ্রেস। কিন্তু দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি (আপ) বিজেপি এবং কংগ্রেস থেকে সমান দূরত্ব বজায় রাখার কথাই বলে এসেছেন এতদিন।

যদিও আপের মুখপাত্র সঞ্জয় সিং সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে জানান, আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে ‘তানাশাহি হঠাও, লোকতন্ত্র বাঁচাও’ কর্মসূচি নিয়েছে দল। ওই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে রাহুল গান্ধীকেও।

তিনি জানিয়েছেন, ওই জনসভায় অংশ নেবেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের উচ্চ নেতৃত্ব। যেমন সেখানে থাকছেন শরদ পাওয়ার, শারদ যাদব, তেজস্বী যাদব, অখিলেশ যাদব, মায়াবতী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এম কে স্ট্যালিন এবং চন্দ্রবাবু নায়ডু-সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। অর্থাৎ, তালিকার নাম থেকেই স্পষ্ট, ১৯ জানুয়ারি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে সাড়া দিয়ে ব্রিগেডে যে সমস্ত দলের নেতা-নেত্রীরা উপস্থিতি হয়েছিলেন, তাঁদের প্রায় প্রত্যেকেই থাকছেন আপের সভায়।

[ আরও পড়ুন: বাংলায় ৪২টি আসনেই প্রার্থী নাও দিতে পারে বামফ্রন্ট! ]

মমতার সভাতেও নিজে হাজির না হয়ে কংগ্রেসের প্রতিনিধি পাঠিয়েছিলেন রাহুল, আগামী বুধবার আপের সভায় আমন্ত্রণ রক্ষায় তিনি নিজে যান, না কি কোনো প্রতিনিধি পাঠান?

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here