মন্ত্রী হতে চান না অরুণ জেটলি, অর্থমন্ত্রী হিসাবে উঠে এল ৩টি নাম

0
finance minister

নয়াদিল্লি: দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থতার জেরে নরেন্দ্র মোদী সরকারের দ্বিতীয় মন্ত্রিসভায় থাকতে না-চাওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। তাঁর আবেদনে সাড়া দিয়েই নতুন অর্থমন্ত্রী বাছাইয়ের কাজ শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। আপাতত সংশ্লিষ্ট মহলের আলোচনায় মোদী সরকারের নতুন অর্থমন্ত্রী হিসাবে উঠে এসেছে তিনটি নাম।

জেটলি বিজেপির প্রবীণ নেতা। তবে গত ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে অমৃতসর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে তিনি পরাজিত হন। কেন্দ্রে এনডিএ সরকার গঠিত হলে তাঁকে মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হয়েছিল তাঁর অভিজ্ঞতার নিরিখেই। কিছু দিনের মধ্যেই তাঁকে রাজ্যসভা থেকে নির্বাচিত করে বিজেপি। শুরুর দিকে তিনি প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সামলালেও গত পাঁচ বছরে বেশিরভাগ সময়টাই তিনি অর্থমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মাঝে কিছুদিন অসুস্থতার কারণে অন্তর্বর্তী অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পান রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল।

নতুন মোদী-মন্ত্রিসভায় অর্থমন্ত্রী হিসাবে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের নাম শোনা গেলেও, তিনি তা নিজেই নস্যাৎ করেছেন। এর পরই স্বাভাবিক ভাবে চলে এসেছে গয়ালের নাম।

অর্থনীতি বিশ্লেষকদের মতে, মোদী মন্ত্রিসভার অর্থমন্ত্রী হিসাবে তালিকার প্রথমেই রয়েছে গয়ালের নাম। একই সঙ্গে রয়েছেন জয়ন্ত সিনহাও। হাজারিবাগের সাংসদ জয়ন্ত এর আগেও একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের দায়িত্ব সামলেছেন। ম্যাককিনসে অ্যান্ড কোম্পানির সঙ্গে দীর্ঘ ১২ বছর অংশীদারি ব্যবসার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। হার্ভার্ড থেকে এমবিএ করার পাশাপাশি আইআইটির এই প্রাক্তনীর অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগালেও লাগাতে পারেন স্বয়ং মোদী।

কোনো কোনো মহল থেকে ভাবী অর্থমন্ত্রী হিসাবে শোনা যাচ্ছে বিজেপির আর এক প্রবীণ নেতা সুব্র্যহ্মণম স্বামীর নামও। তবে তাঁর নাম আপাতত রয়েছে তৃতীয় স্থানে। আগামী বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন মোদী। একই সঙ্গে মন্ত্রিসভার অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ কয়েক জন সদস্যেরও শপথ নেওয়ার কথা রয়েছে। ওই দিন হয়তো তালিকায় থাকা এই তিন জনের মধ্যে থেকেই এক জনের হাতে তুলে দেওয়া হতে পারে অর্থ মন্ত্রকের দায়িত্ব

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন