RBI

ওয়েবডেস্ক: দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া (আরবিআই)-র ডেপুটি গভর্নর ভিরাল আচার্য। আরবিআইয়ের স্বাধীনতায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকার হস্তক্ষেপ করছে বলে তিনি ইঙ্গিত দিলেন নিজের বক্তব্যে।

শুক্রবার মুম্বইয়ে আচার্য বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিকে নিয়ন্ত্রণের সীমিত অধিকার রয়েছে আরবিআইয়ের হাতে। সেগুলির আধিকারিকদের স্থান পরিবর্তন, ব্যাঙ্কের লাইসেন্স বাতিল বা একটি ব্যাঙ্কের সঙ্গে অন্য কোনো ব্যাঙ্কের মিশে যাওয়ার ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে পারে না আরবিআই। তা সত্ত্বেও আরবিআই যখন নিজেদের ব্যালান্সশিটকে আরও শক্তিশালী করার উদ্যোগ নিচ্ছে তখন কেন্দ্রের তরফে বাড়তি বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

RBI viral acharya
ভিরাল আচার্য

তাঁর অভিযোগ, “কেন্দ্র টি-২০ খেলার চেষ্টা করছে। আর আমরা টেস্ট খেলায় বিশ্বাসী। কারণ আরবিআই ভবিষ্যতের কথা ভেবে বহুবিধ কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে চায়। শর্ট-টার্ম নিষ্পত্তির আশা নিয়ে এগোলে পরবর্তীতে ব্যাঙ্কের আর্থিক নিরাপত্তায় ব্যাঘাত ঘটাটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সরকারি হস্তক্ষেপে আমাদের উপর শর্ট টার্ম নীতি মেনে চলতেই বাধ্য করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে সরকারের এহেন হস্তক্ষেপ এবং মধ্যস্থতা আরবিআইয়ের স্বাধীনতাকে খর্ব করে ভবিষ্যতকে প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিচ্ছে”।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ডেপুটি গভর্নরের এমন কড়া প্রতিক্রিয়ার অবশ্য কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির মন্তব্যের সূত্র ধরেই। জেটলি মন্তব্য করেছিলেন, “দেশে ব্যাঙ্ক প্রতারণার যে সমস্ত ঘটনা ঘটে চলেছে তাতে কেন্দ্রের থেকেও বেশি দায়ী সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কগুলি। তা সত্ত্বেও এক তরফা ভাবে সমালোচনার শিকার হতে হচ্ছে শুধু রাজনীতিবিদদেরই”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here