বায়ুদূষণের কারণে উত্তর ভারতের বাসিন্দাদের আয়ু কমে যেতে পারে ন’বছর, দাবি রিপোর্টে

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: উত্তর ভারতের কাছে বায়ুদূষণ বরাবরই একটা ঘোরতর সমস্যা। সেই বায়ুদূষণের কারণেই দেশের ওই প্রান্তের মানুষের গড় আয়ু কমে যেতে পারে ন’বছর। আমেরিকার শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের এয়ার কোয়ালিটি লাইফ ইনডেক্স-(AQLI) এর রিপোর্ট তেমনই দাবি করছে।

একিউএলআই-এর মতে, ভারত পৃথিবীর সবচেয়ে দূষিত দেশ। কারণ এখানকার ৪০ শতাংশ মানুষ গাঙ্গেয় সমভূমির বাসিন্দা। এই অঞ্চলে বায়ুদূষণের মাত্রা তার ব্যাপ্তিতে বিশ্বের অন্য যে কোনো অঞ্চলের বছরভর বায়ুদূষণ-মাত্রাকে প্রায়শই ছাড়িয়ে যায়। ভৌগোলিক ব্যাপ্তিতে তাই এটাই বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত এলাকা।

Shyamsundar

গবেষকদের মতে, ২০১৯-এ গাঙ্গেয় সমভূমিতে বায়ুদূষণের যে মাত্রা ছিল, তা বজায় থাকলে ওই অঞ্চলের ৪৮ কোটি বাসিন্দার গড় আয়ু কমপক্ষে ৯ বছর করে কমে যেতে পারে। সেই সঙ্গে একিউএলআই রিপোর্ট এ-ও জানাচ্ছে, ভারতে বায়ুদূষণের ভৌগোলিক ব্যাপ্তি ক্রমশই বাড়ছে। মহারাষ্ট্র এবং মধ্যপ্রদেশের মানুষ একুশ শতকের গোড়ার বছরের তুলনায় এখনই গড়ে ২.৫ থেকে ২.৯ বছর আয়ুষ্কাল খোয়াচ্ছেন।

গোটা দক্ষিণ এশিয়ার পরিস্থিতি ভয়াবহ

তবে শুধু ভারতই নয়, গোটা দক্ষিণ এশিয়া জুড়েই বায়ুদূষণের ভয়াবহতা সম্পর্কে সতর্ক করা হয়েছে রিপোর্টে। সেখানে বলা হয়েছে, ভারত-পাকিস্তান-বাংলাদেশ-নেপালে পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার এক চতুর্থাংশের বাস এবং এই চারটি দেশই লাগাতার বিশ্বের প্রথম পাঁচটি দূষিত দেশের তালিকায় থাকে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মাপকাঠিতে দূষণ-মাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়া বায়ুতে শ্বাস নিতে নিতে পৃথিবী জুড়ে ব্যক্তি-আয়ুষ্কালের মোট যত বছর নষ্ট হতে পারে, তার ৬০ শতাংশই আসবে দক্ষিণ এশিয়া থেকে। যদিও রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিকা মেনে দূষণ কমাতে পারলে, দক্ষিণ এশিয়াবাসীর গড় আয়ু ৫.৬ বছর করে বাড়তে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিকায়, বাতাসে সূক্ষ্ম কণার স্বাভাবিক পরিমাণ হওয়া উচিত প্রতি ঘন মিটারে ১০ মাইক্রোগ্রাম। ভারতে তা রয়েছে গড়ে প্রতি ঘন মিটারে ৭০ মাইক্রোগ্রাম। বিশ্বে সর্বোচ্চ।

এই ভয়াবহ দূষণের কারণ হিসেবে রিপোর্টে বলা হয়েছে ভারত ও পাকিস্তানেই ২০০০ সালের তুলনায় এখন রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা চতুর্গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। ১৯৯৮ থেকে ২০১৭-র মধ্যে ভারত-পাকিস্তান-বাংলাদেশ-নেপাল মিলিয়ে জীবাশ্ম-জ্বালানিনির্ভর তাপবিদ্যুৎ উৎপাদন বেড়েছে তিন গুণ। এই কারণেই পরিস্থিতি এমন ভয়াবহ হয়ে উঠেছে।

আরও পড়তে পারেন

বঙ্গভঙ্গের দাবিতেই সায় দিলেন উত্তরবঙ্গের বিজেপি বিধায়করা

কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা সৈয়দ আলি শাহ গিলানি প্রয়াত

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন