লখনউ: ১৯৯২ সালের বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় লালকৃষ্ণ আডবাণী, মুরলী মনোহর জোশী ও উমা ভারতীকে ৩০ মে হাজিরা দিতে বলল লখনউয়ের বিশেষ সিবিআই আদালত।

আদালতে যাতে তাঁদের ব্যক্তিগত ভাবে হাজিরা দিতে না হয়, সে জন্য আবেদন করেছিলেন আডবাণী ও কেন্দ্রীয় জলসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী উমা ভারতী। কিন্তু তাঁদের আবেদনে সাড়া দিল না আদালত।

আরও পড়ুন: বাবরি ধ্বংস: আডবাণীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি ষড়যন্ত্রের মামলা চলবে

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর উত্তরপ্রদেশে ধ্বংস করা হয় বাবরি মসজিদ। সেই ঘটনায় ষড়যন্ত্রে আডবাণী, জোশী ও ভারতী যুক্ত বলে চার্জ গঠন করে সিবিআই। কিন্তু ২০০১ সালে বিশেষ সিবিআই আদালত ওই তিন নেতার উপর থেকে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে নিতে বলে। ২০১০ সালে সেই রায় বহাল রাখে ইলাহাবাদ হাই কোর্ট। কিন্তু গত মাসে সুপ্রিম কোর্ট বলে বাবরি ধ্বংসের ঘটনায় তিন জনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি ষড়যন্ত্রের মামলা চলবে। মামলাটি রায়বেরিলি থেকে সরিয়ে লখনউ আদালতে নিয়ে আসতে বলে শীর্ষ আদালত। পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ, প্রতিদিন মামলাটির শুনানি করতে হবে এবং ১ মাসের মধ্যে নতুন করে চার্জ গঠন করতে হবে। ২ বছরের মধ্যে মামলাটি শেষ করারও নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত।

আডবাণী, জোশী, ভারতী ছাড়াও এই মামলায় যুক্ত রয়েছেন বিজেপি, শিবসেনা ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের বেশ কয়েকজন নেতা।

মামলায় অভিযুক্ত ৬ নেতা এই সপ্তাহেই আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নিয়েছেন।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here