নয়াদিল্লি: বাবরি মসজিদ ধ্বংসের বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের অংশ ছিলেন এল কে আডবাণী-সহ ১৩ জন। সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা (সিবিআই)। ওই নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা পুনর্জীবিত করার জন্য শীর্ষ আদালতে আবেদনও জানিয়েছে সিবিআই।

সুপ্রিম কোর্টে সিবিআই জানিয়েছে, পদ্ধতিগত কারণে আডবাণী ও অন্যদের বিরুদ্ধে যড়যন্ত্রে যুক্ত থাকার মামলা দায়ের করা যায়নি। তদন্তকারী সংস্থা চায়, লখনউ-এর আদালতে তাঁদের বিচার হোক।

১৯৯২ সালে শ’য়ে শ’য়ে হিন্দু করসেবক কুঠার, হাতুড়ি ও অন্যান্য অস্ত্র দিয়ে বাবরি মসজিদ ধ্বংস করে। ওই ঘটনার পরে দেশ জুড়ে সাম্প্রদায়িক হিংসায় প্রায় ৩০০০ মানুষের মৃত্যু হয়।

অনেক হিন্দু বিশ্বাস করেন, পৌরাণিক চরিত্র রামের জন্মস্থানে থাকা একটি মন্দির ধ্বংস করেছিলেন মোগল সম্রাট বাবর। সেখানেই তৈরি হয়েছিল বাবরি মসজিদ। সেই বিশ্বাস থেকে তৈরি হওয়া উত্তেজনার জেরেই ধ্বংস করা হয়েছিল ওই মসজিদ।

কিছু দিন আগেই শীর্ষ আদালত ইঙ্গিত দিয়েছিল, তারা বিজেপি ও অন্যান্য হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের নেতাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি ষড়যন্ত্রে যুক্ত থাকার মামলা পুনর্জীবিত করতে পারে। এর আগে পদ্ধতিগত কারণে ওই মামলা খারিজ করে দিয়েছিল লখনউ-এর একটি বিশেষ আদালত। আডবাণী ছাড়াও ওই মামলায় অভিযুক্তদের তালিকায় আছেন বিজেপি নেতা মুরলী মনোহর জোশী, উমা ভারতী, কল্যাণ সিং এবং বিশ্ব হিন্দু পরিষদের বেশ কয়েক জন নেতা।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here