চণ্ডীগড়: সাম্প্রতিক কালে ইভিএম নিয়ে বারবার বিতর্ক তুলেছে বিরোধী দলগুলি। নির্বাচন প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে মুখ্যনির্বাচন কমিশনার নাসিম জইদি বলেছেন, ইভিএম কেউ হ্যাক করে দেখাক। এসবের মধ্যেই সব বুথে যাতে ভিভিপ্যাট যুক্ত ইভিএম (যেখান থেকে বেরোনো কাগজ ভোটারকে দেখিয়ে, তিনি যেখানে ভোট দিয়েছেন, সেখানেই ভোট পড়ল কি না) দেওয়া যায়, তার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের থেকে বরাদ্দও আদায় করেছেকমিশন। তবে শুধু তাতেই না থেমে নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে সন্দেহ-অবিশ্বাস দূর করতে সব দলকে নিয়ে বৈঠক ডাকার পথে হাঁটছে নির্বাচন কমিশন।

মুখ্য নির্বাচন কমিশনার নাসিম জইদি এদিন বলেন, “খুব শিগগির আমরা একটি সর্বদলীয় বৈঠক ডাকব। সেই বৈঠকে আমরা ব্যাখ্যা করব, কেন ইভিএম কোনোভাবেই ভুল করতে পারেনা। আমাদের প্রযুক্তিগত ব্যবস্থা যে সম্পূর্ণ নিরাপদ, তাও আমরা ব্যাখ্যা করব ওই বৈঠকে”।

জইদি এদিন বলেন, সব বুথে ভিভিপ্যাট যুক্ত ইভিএম দেওয়ার মতো তহবিল তাঁদের হাতে এসে গেছে। সেক্ষেত্রে ভারতই হবে প্রথম দেশ, যেখানে নির্বাচনে সর্বত্র ভিভিপ্যাট ব্যবহার হবে।২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচন থেকেই তা শুরু হওয়ার সম্ভাবনা।

 

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here