সমাজসেবার নামে সরকারি টাকা নিয়ে হাত গুটিয়ে বসে, আইনি নোটিশ সলমনের সংস্থাকে

0
469
salman khan

ওয়েবডেস্ক: বিইং হিউম্যান! আপাতদৃষ্টিতে নামের মধ্যে দিয়ে যথার্থ মানুষ হয়ে ওঠারই বার্তা দিচ্ছে সলমন খানের এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। অবশ্য, শুধু নাম-ই নয়, কাজকর্মের দিক থেকেও তেমনটাই দাবি করে থাকে ‘বিইং হিউম্যান’। কিন্তু আদতে যে এই সংস্থা সমাজসেবার নামে সরকারি টাকা আত্মসাৎ করে চুপচাপ বসে রয়েছে, সেই খবর এ বার প্রকাশ্যে এল বৃহৎ মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের সৌজন্যে।

salman khan

জানা গিয়েছে, সম্প্রতি শিবসেনা পরিচালিত বৃহৎ মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন একটি শো-কজ নোটিশ পাঠিয়েছে সলমন খানের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘বিইং হিউম্যান’-কে। পুরসভা জানিয়েছে, সলমন খানের সংস্থার সঙ্গে তাদের একটি ডায়ালিসিস সেন্টার খোলার চুক্তি হয়েছিল। দরিদ্র শহরবাসী যাতে কম খরচে এই চিকিৎসা-পরীক্ষার সুযোগ নিতে পারেন, তার জন্য শহরের ১২টি জায়গায় ১২টি ডায়ালিসিস সেন্টার খোলার পরিকল্পনা করেছিল পুরসভা, যেখানে মাত্র ৩৩৯.৫০ টাকায় ডায়ালিসিসের পরিষেবা দেওয়ার কথা হয়েছিল। সেই ১২টি সেন্টারের মধ্যে একটির বরাত পেয়েছিল সলমনের সংস্থা ‘বিইং হিউম্যান’।

salman khan

পুরসভার বক্তব্য, সেই ডায়ালিসিস সেন্টার খোলার জন্য অনুদানের টাকাও তুলে দেওয়া হয়েছে ‘বিইং হিউম্যান’-এর হাতে। কিন্তু সেই টাকা আত্মসাৎ করে চুপচাপ বসে রয়েছে সংস্থা, ডায়ালিসিস সেন্টার খোলার কোনো উদ্যোগই দেখা যাচ্ছে না তাদের তরফে। ফলে বাধ্য হয়ে এ বার সংস্থাকে শো-কজের চিঠি পাঠিয়েছে পুরসভা।

salman khan

যদিও ‘বিইং হিউম্যান’ পুরসভার এই বক্তব্যকে অস্বীকার করেছে। জানিয়েছে, তারা টাকা আত্মসাৎ করেনি। প্রস্তাবমতো ডায়ালিসিস সেন্টার ঠিকই খোলা হবে। প্রযুক্তিগত কিছু অসুবিধার জন্য এখনও কাজ শুরু করা যায়নি, এমনটাই দাবি করা হয়েছে সংস্থার তরফে।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here