নমুনা পরীক্ষা। প্রতীকী ছবি: টাইমস অব ইন্ডিয়া থেকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভারতে করোনাভাইরাসের প্রধান কেন্দ্রস্থল মহারাষ্ট্র। গোটা দেশের মধ্যে করোনায় সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্যটির নাম মহারাষ্ট্র। সেই মহারাষ্ট্রের একটি জেলাই গত ১৫ মাস পর কোভিডমুক্ত হল।

পূর্ব মহারাষ্ট্রের ভান্ডারা জেলায় শুক্রবার শেষ সক্রিয় কোভিড রোগীও সুস্থ হয়ে উঠেছেন। নতুন করে কোনো করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির খোঁজও মেলেনি এই জেলায়। বর্তমানে এই জেলায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ০। গত বছর এপ্রিলে প্রথম করোনা রোগীর সন্ধান মেলে এই জেলায়। তার পর এই প্রথম বার ভান্ডারায় কোনো সক্রিয় কোভিডরোগী নেই।

প্রশাসনের সঙ্গে সম্পূর্ণ ভাবে সহায়তা করে গিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। দু’ পক্ষই যৌথ ভাবে কোভিড মোকাবিলা করায় এই সাফল্য অর্জন করেছে জেলাটি। এমনই বলেন ভান্ডারার জেলাশাসক সন্দীপ কদম।

তবে আগামী দিনে কোভিডরোগীর সন্ধান পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন সন্দীপ। সে কারণে তিনি বলেন, “এখন এই জেলায় কোনো সক্রিয় রোগী না থাকলেও ভবিষ্যতে নতুন আক্রান্তের খোঁজ মিলতেই পারে। সে কারণে কোভিডবিধি কঠোর ভাবে মেনে চলতেই হবে।”

মহারাষ্ট্রেও দৈনিক সংক্রমণ কমেছে

এ দিকে, মহারাষ্ট্রেও নতুন সংক্রমণ অনেকটাই কমে গিয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায়। ৫,৫৩৯ নতুন সংক্রমণের খোঁজ মিলেছে রাজ্যে। এটা হয়েছে ২ লক্ষ ১০ হাজার ৪২৫টি টেস্টের বিপরীতে। ফলত, রাজ্যে সংক্রমণের হার অনেকটাই কমে এখন ২.৬৩ শতাংশ।

সংক্রমণ অনেকটা কমেছে মুম্বইতেও। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩০৪ জন।

আরও পড়তে পারেন

এক ধাক্কায় ৩৯ হাজারের নীচে নেমে এল দৈনিক সংক্রমণ, কমল সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও


dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন