জল্পনার অবসান! গুজরাতের নতুন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র পটেল

0
ভূপেন্দ্র পটেল। ছবি: ফেসবুক থেকে

গান্ধীনগর: বিজয় রূপাণীর ইস্তফার পর গুজরাতের নতুন মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, তা নিয়েই চলছিল জল্পনা। রবিবার বিকেলে সেই জল্পনার অবসান হল।

এ দিন বৈঠকে বসেছিল বিজেপির পরিষদীয় দল। সেখানে উঠে আসে একাধিক নাম। তবে সর্বসম্মতিক্রমে গুজরাতের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত হয়েছেন ভূপেন্দ্র পটেল।

এ দিন বিজেপির পরিষদীয় দলে বৈঠকের শেষে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হন ভূপেন্দ্র। তিনি গুজরাতের ঘাটলোদিয়া কেন্দ্রের বিধায়ক। আগে এই কেন্দ্র থেকেই নির্বাচিত হয়েছিলেন প্রাক্তন মুখ্য়মন্ত্রী আনন্দীবেন পটেল।

গত শনিবার মুখ্যমন্ত্রীপদ থেকে ইস্তফা দেন বিজয় রূপাণী। তাঁর পদত্যাগ অনেকের কাছে তাৎক্ষণিক মনে হলেও তা আসলে পূর্বপরিকল্পিত। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশেই তাঁর এই পদত্যাগ। এর আগে ২০১৬ সালে কতকটা একই ভাবে রূপাণীর পূর্বসূরি আনন্দীবেন পটেলকে নির্বাচনের ঠিক এক বছর আগে সরে দাঁড়াতে বলেছিল বিজেপি।

বিজয় রূপাণীর জায়গায় গুজরাতের দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের বিতর্কিত প্রশাসক প্রফুল খোদা পটেল, রাজ্যের উপ-মুখ্যমন্ত্রী নিতিন পটেল এবং কৃষিমন্ত্রী আরসি ফালদুর নাম নিয়ে জল্পনা চলছিল।

বছর ঘুরলেই গুজরাতের বিধানসভা ভোট। পটেল সম্প্রদায়ের বড়োসড়ো প্রভাব রয়েছে রাজ্যে। সেখানে আম আদমি পার্টির মতো বিরোধী দল ক্রমশ পায়ের তলায় মাটি শক্ত করছে। সেই জায়গায় জাতিগত সমীকরণ মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে শাসক শিবিরের। দলের বড়ো একটা অংশ ইতিমধ্যেই দাবি তুলেছে, পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী মনোনীত করা হোক পাতিদার সম্প্রদায় থেকে। যেখানে রূপাণী ছিলেন জৈন সম্প্রদায়ের। তবে পটেল সম্প্রদায়ের কথা মাথায় রেখেই ভূপিন্দরকে বেছে নিল বিজেপি।

আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়তে পারেন:

উত্তরপ্রদেশের উন্নয়নের বিজ্ঞাপনে কী ভাবে মা উড়ালপুলের ছবি? বিবৃতি যোগী সরকারের

গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণীর অপসারণের আগে সমীক্ষা চালিয়েছিল আরএসএস, উঠে আসে বিস্ফোরক তথ্য!

অদ্ভুত কাণ্ড! উত্তরপ্রদেশে যোগীর উন্নয়নের বিজ্ঞাপনে কলকাতার মা উড়ালপুল

করোনা সংক্রমণে বড়োসড়ো পতন! আগের দিনের থেকে কমল ১৪ শতাংশ

মুখের মধ্যেই ৯৫১ গ্রাম সোনা! দিল্লি বিমানবন্দরে আটক ২

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন