delhi biker dies

নয়াদিল্লি: তিনি মদ্যপ ছিলেন না, বেপরোয়া গাড়িও চালাচ্ছিলেন না, তবুও মৃত্যু হল তাঁর। পুলিশের একটা গাফিলতি জীবন কেড়ে নিল তাঁর।

পুলিশ ব্যারিকেডের তার গলায় জড়িয়ে মৃত্যু হল বছর ২১-এর মোটরবাইক চালকের। ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির নেতাজি সুভাষ প্লেসে। একটি অনলাইন ক্যাব সংস্থার চালক হিসেবে কাজ করতেন এই যুবক, অভিষেক। তাঁর বাড়ি দিল্লির শকরপুর কলোনিতে।

ব্যারিকেডের তার গলায় জড়িয়েই যে অভিষেকের মৃত্যু হয়েছে সে খবর নিশ্চিত করেন দিল্লির ডেপুটি পুলিশ কমিশনার আসলাম খান। তিনি বলেন, “ওই যুবকের গলায় ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্ত চলছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে জানা যাবে অভিষেকের মৃত্যু গলা কেটে যাওয়ার ফলে হয়েছে না কি শ্বাসরোধ করে হয়েছে।” তাঁর দাবি, দু’টি ব্যারিকেডকে জুড়ে রাখার জন্য এই তার ব্যবহার করা হয়।

কী ভাবে অভিষেকের গলায় তার জড়াল সে ব্যাপারে তদন্ত করছে পুলিশ। এর পেছনে দু’টি কারণ থাকতে পারে বলে মনে করছে পুলিশ। অভিষেক হয়তো তাঁর মোটরবাইক পার্ক করাচ্ছিলেন এবং তারটা খেয়াল করেননি, কিংবা তারটিকে দেখতে না পেয়ে সেখান দিয়ে মোটরবাইক চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টাও করে থাকতে পারেন তিনি। যেটাই হোক, স্থানীয় পুলিশের যে কর্তব্যে গাফিলতি ছিল সেটা মেনে নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে সুভাষ প্লেস থানার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সুভাষ প্লেস থানার স্টেশন হাউস অফিসারকে বদলি করে দেওয়া হয়েছে এবং ওই থানায় কর্তব্যরত চার পুলিশ অফিসারকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন