biplab kumar deb

আগরতলা: সংবাদ মাধ্যমের হাতে ‘মশলা’ তুলে না দেওয়ার যে বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দিয়েছিলেন তা কি অবশেষে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর কানে পৌঁছোল? ডায়না হেডেনকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই ক্ষমা চাইলেন তিনি। বললেন, সব মহিলাকেই তিনি মায়ের মতো সম্মান করেন।

বৃহস্পতিবার প্রাক্তন মিস ওয়ার্ল্ড, ডায়ানা হেডেনকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। তিনি বলেন, “মিস ওয়ার্ল্ড হওয়ার মতো ‘ভারতীয়’ হেডেন নন।” সেই সঙ্গে তুলোধোনা করেন বিভিন্ন সৌন্দর্যের প্রতিযোগিতাগুলির। বলেন, এই ধরনের প্রতিযোগিতা শুধুমাত্র প্রহসন, এবং তাদের ফলও পূর্বনির্ধারিত থাকে। সেই সঙ্গে বিউটি পার্লারেরও সমালোচনা করেন তিনি। তাঁর মতে, সৌন্দর্যের প্রতিযোগিতা আসলে বড়ো একটা মাফিয়া, তাদের জন্য বিউটি পার্লারের বাড়বাড়ন্ত।

নিজের মন্তব্য থেকে পিছিয়ে এসে বিপ্লব এ বার বলেছেন, “আমি শুধুমাত্র বলতে চেয়েছিলাম যে রাজ্যের তাঁতবস্ত্রকেও বিশ্ববাজারে ভালো করে বিপণন করতে হবে। আমার মন্তব্যে যদি কেউ আহত হয়ে থাকেন, আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আমি সব মহিলাকে মায়ের মতো সম্মান করি।”

কিছু দিন আগেই, “মহাভারতের যুগেও ইন্টারনেট ছিল” বলে মন্তব্য করেছিলেন বিপ্লব। সেই মন্তব্য থেকে অবশ্য কখনোই পিছিয়ে আসেননি।

এ দিকে যাঁকে নিয়ে এত বিতর্ক বাঁধিয়েছেন বিপ্লব, সেই ডায়ানা হেডেন সাফ জানিয়েছেন তিনি এই সব সমালোচনার পাত্তা দেন না বটে তবে আঘাত পান। নিজের ‘ব্রাউন স্কিন’ নিয়ে কতটা গর্বিত তিনি, সে কথাও বলে দেন। ডায়ানা বলেন, “আমি কী সাফল্য পেয়েছি সেটা দেখে মানুষের গর্বিত হওয়া উচিত, ঠাট্টা করা উচিত নয়। আমি আহত হয়েছি। মুখ্যমন্ত্রী একজন উচ্চ পদে রয়েছেন। তাঁর উচিত সব কিছু দেখে, ভেবে, তার পর মন্তব্য করা।”

তবে বিপ্লবের এই মন্তব্যের পরে যে ভাবে রাজ্য জুড়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে গিয়েছে, তার পর তাঁর ক্ষমা চাওয়া ছাড়া আরও কোনো পথ ছিল না বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here