রাহুলের ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ মন্তব্যে উত্তাল সংসদ, ক্ষমা চাওয়ার দাবি স্মৃতি-লকেটদের

0

নয়াদিল্লি: কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে উত্তাল হয়ে উঠল সংসদের দুই কক্ষই। লোকসভায় তুমুল বিক্ষোভ দেখালেন স্মৃতি ইরানি, লকেট চট্টোপাধ্যায়-সহ বিজেপির মহিলা সাংসদরা। রাহুলকে শাস্তিরও দাবি জানান তাঁরা।

ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনী প্রচারে রাহুল গান্ধী মন্তব্য করেছিলেন, মোদীর ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ ‘রেপ ইন ইন্ডিয়ায়’ পরিণত হয়েছে। এই মন্তব্যের জেরেই এ দিন উত্তাল হয়ে উঠল লোকসভা।

নির্বাচনী প্রচারে রাহুল বলেছিলেন, “মেক ইন ইন্ডিয়ার’ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু এখন যেখানেই দেখো ‘রেপ ইন ইন্ডিয়ায়’ পরিণত হয়েছে। উত্তর প্রদেশে মোদীরই বিধায়ক ধর্ষণ করেন এক মহিলাকে। নির্যাতিতাকে গাড়ি দুর্ঘটনায় মারার চেষ্টা চলে। কিন্তু মোদী একটা শব্দও খরচ করেননি।”

তাঁর আরও অভিযোগ, ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ বার্তা দিলেও কাদের হাত থেকে মেয়েদের বাঁচা উচিত, সে কথা কখনও বলেননি মোদী। সেই সঙ্গে তিনি যোগ করেন, “বিজেপি বিধায়কের হাত থেকে মেয়েদের বাঁচতে হবে।”

আরও পড়ুন বিপুল গরিষ্ঠতা নিয়ে ব্রিটেনে ক্ষমতা দখল কনজারভেটিভদের, ইস্তফা দিচ্ছেন করবিন

রাহুলের এই মন্তব্যের পরই তুমুল বিক্ষোভ দেখান বিজেপি সাংসদরা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি বলেন, ধর্ষণের মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনাকে রাজনৈতিক ফায়দা তুলছেন রাহুল। এ ধরনের মন্তব্যে তাঁর যথাযথ শাস্তি হওয়া উচিত বলেও জানান স্মৃতি।

বিজেপির আরও এক মহিলা সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন, “মেক ইন ইন্ডিয়ায় বিশ্বের সব মানুষকে ভারতে আসার বার্তা দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, আর রাহুল গান্ধী বলছেন ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’! সবাইকে ‘রেপ’ করার আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন! এই মন্তব্য দেশের মহিলাদের কাছে অপমানজনক।” কংগ্রেস গোটা দেশকেই ধর্ষণ করেছে বলে মন্তব্য করেন লকেট।

এ দিন বিজেপির মহিলা সাংসদদের হইচইয়ের পরেই অনির্দিষ্টকালের জন্য মুলতুবী হয়ে যায় লোকসভা। ফলে শীতকালীন অধিবেশন শেষ হল, সেটা বলা যায়।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন