Kedarnath

ওয়েবডেস্ক: ২০১৩ সালের ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কথা এখনও ভুলতে পারেননি মানুষ। হিমালয়ে সেই প্রাকৃতিক তাণ্ডবের পর হিন্দু ধর্মের মানুষ ঘটনার উৎস খুঁজতে নেমে পড়েন ধর্মীয় ব্যাখ্যাকে সঙ্গী করে। তা যাইহোক, সেই ঘটনার বেদনাবিধুর স্মৃতিকথাকে সেলুলয়েডে বন্দি করেছেন হিন্দি ছবির পরিচালক অভিষেক কাপুর। আর সেই ছবি নিয়ে উঠেছে ‘গেল গেল’ রব!

উত্তরাখণ্ডের বিজেপি নেতা তথা মুখপাত্র অজয়েন্দ্র অজয় সেন্ট্রাল বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশনের চেয়ারম্যান প্রসূন যোশীর কাছে লিখিত আবেদনে জানিয়েছেন, এই ছবির মুক্তি যেন নিষিদ্ধ করা হয়। তাঁর মতে, এই ছবিতে ‘লাভ জেহাদ’-এর প্রচার করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অজয় ইঙ্গিত করেছেন ছবির টিজার এবং ট্যাগলাইনকে। টিজারে দেখা গিয়েছে, এক যুবক (সুশান্ত সিং রাজপুত) এক যুবতী (সারা আলি খান)-কে চুম্বন করছেন। এ ছাড়া ওই ছবির ট্যাগলাইনে লেখা রয়েছে- ‘ভালোবাসা হল তীর্থযাত্রা’। কেদারনাথ কোটি কোটি হিন্দুর বিশ্বাসের প্রতিনিধিত্ব করছে। সেখানে এই ধরনের টিজার এবং ট্যাগলাইন সেই বিশ্বাসে আঘাত হেনেছে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের কাছে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অজয় বলেন, “কোটি কোটি হিন্দুর বিশ্বাসের কেন্দ্রস্থল কেদারনাথ একটা বিশাল বিয়োগান্তক ঘটনার সাক্ষী হয়েছিল। সেই ঘটনার উপর একটা রোমান্টিক প্রেমের গল্প রচনা করে চলচ্চিত্র নির্মাতারা হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করেছেন”।

একই ভাবে তিনি জানিয়েছেন, “ওই ছবিতে দেখানো হয়েছে এক জন মুসলমান কুলির সঙ্গে হিন্দু তীর্থযাত্রীর প্রেমকাহিনি। তিনি প্রশ্ন তুলছেন, ছবির প্রধান ভূমিকায় কোনো হিন্দুকে কেন খুঁজে পেলেন না পরিচালক”?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here