গোয়ায় বিজেপির অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

0
BJP Bengal
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: কর্নাটক দখল করার স্বপ্নে বিজেপি যখন মশগুল, তখনই গোয়ায় বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে এল। আর সে সবই হয়েছে গোয়ার নতুন মন্ত্রিসভায় ‘কংগ্রেস’ বিধায়কদের ঠাঁই পাওয়াকে কেন্দ্র করে।

গোয়ার মন্ত্রিসভা নতুন করে সাজিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সবন্ত। কংগ্রেসের বিরোধী দলনেতা চন্দ্রকান্ত কাভলেকরকে উপ-মুখ্যমন্ত্রী করা হয়েছে। পাশাপাশি মন্ত্রী হিসাবে শপথ নেবেন জেনিফার মনসেরাত, ফিলিপ ন্যারি রডরিগজ। মন্ত্রিসভায় নতুন মন্ত্রীরা এ ভাবে জায়গা পাওয়ায় প্রবল ক্ষুব্ধ বিজেপির শরিক দল গোয়া ফরওয়ার্ড পার্টি।

Shyamsundar

গোয়া ফরওয়ার্ড পার্টির তিন বিধায়ককে মন্ত্রিসভা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিজেপি তাঁদের ইস্তফার দাবি জানালেও তাঁরা বেঁকে বসেন। বিধায়কদের দাবি, তাঁদের বহিষ্কার না করা পর্যন্ত ইস্তফা দেবেন না। এক নির্দল নেতা রোহন খাবন্তেও জোট সরকার থেকে বেরিয়ে আসেন।

আরও পড়ুন ডুবেছে কাজিরাঙা, নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে জেরবার গণ্ডার-হাতিরা

শুধু শরিক দলই নয়, এ ভাবে কংগ্রেস বিধায়করা যোগ দেওয়ায় বিক্ষুব্ধ বিজেপির একাংশ। বিজেপি নেতা প্রণব সনভর দারকার দলীয় পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে তাঁর আক্ষেপের কথা জানান। বলেন, কংগ্রেসের বিধায়কদের এ ভাবে সাদরে আমন্ত্রণ করায় তিনি মর্মাহত। তাঁদের মন্ত্রিত্বও দেওয়া হচ্ছে দেখে তিনি অবাক।

উল্লেখ্য, কর্নাটকের নাটকের মধ্যে গোয়ায় কংগ্রেসের দশ জন বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। ৪০ আসনের গোয়ায় তাদের এখন আসন সংখ্যা হল ২৭। ২০১৭ সালে কংগ্রেস ছিল একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল, এখন সেই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে মাত্র ৫টিতে।

কিন্তু যে ভাবে বিজেপির অন্দরে ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে, সেই ক্ষোভ দল কী ভাবে সামাল দেবে সেটাই দেখার।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন