Manvendra Singh

ওয়েবডেস্ক: রাজস্থানের বিধানসভা নির্বাচনের আগেই দল ছাড়লেন বিজেপি বিধায়ক মানবেন্দ্র সিংহ। প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী সরকারের প্রাক্তন অর্থ ও বিদেশমন্ত্রী জসবন্ত সিংহের পুত্র মানবেন্দ্র শনিবার ‘স্বাভিমান’ পদযাত্রা থেকেই কয়েক হাজার অনুগামীকে নিয়ে দল ছাড়ার কথা ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, “বিজেপিতে যোগ দিয়ে ভুল করেছিলাম”।

বাজপেয়ী জামানায় জসবন্ত সিংহের ভূমিকা ছিল ‘সঙ্কটমোচক’-এর। যে কারণে তাঁকে প্রায়শই বাজপেয়ী ‘হনুমান’ বলে ডাকতেন। এ হেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গত ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে নির্দল প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তাঁরই পুত্র মানবেন্দ্র বর্তমানে শেও বিধানসভা থেকে নির্বাচিত বিজেপি বিধায়ক। তবে গত কয়েক মাস ধরেই বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে মানবেন্দ্র এবং তাঁর স্ত্রী চিত্রা সিংহের বাকযুদ্ধ লেগে রয়েছে।

চিত্রা দাবি করেন, “পাঁচ বছর আগে মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে বের করেছিলেন ‘সুরজ যাত্রা’। কিন্তু গত পাঁচ বছরে জৈসলমের আর বাড়মেরের নিরীহ কৃষকদের অকারণে জেলে পুরে দেওয়া হয়েছে। তিনি এখন শুরু করেছেন ‘গৌরব যাত্রা’। কীসের গৌরব? সেই দিনটা ক্রমশ এগিয়ে আসছে যে দিন রাজ্যের মানুষ বসুন্ধরা রাজেকে মুখ্যমন্ত্রীর আসন থেকে টেনে নামাবেন। মানুষের নিজস্ব একটা আত্মসম্মান রয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী সেটাকেই অস্বীকার করছেন”।


আরও পড়ুন: পঞ্জাবে পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফলাফলে বিজেপি-শরিককে কয়েক যোজন পিছনে ফেলে এগোচ্ছে কংগ্রেস

অন্য দিকে বাড়মেরে বসুন্ধরার ‘গৌরব যাত্রা’য় ্অংশ নেননি মানবেন্দ্র। বিজেপি ছাড়ার পর তিনি কোন দলে যোগ দিচ্ছেন তা এখনও পর্যন্ত ঘোষণাও করেননি। তবে সূত্রের খবর, মানবেন্দ্রের সঙ্গে রাজস্থান কংগ্রেসের একটি অংশ যোগাযোগ রাখছে। ফলে আগামী দিনে তিনি কংগ্রেসে যোগ দিলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই। কারণ, জসবন্ত সিংহের উত্তরসূরি মনে করেন, তাঁর পিতাকে বিজেপি ২০১৪ সালে টিকিট না দিয়ে যে ‘নিষ্ঠুরতা’র নমুনা রেখেছে, তা তাঁর ক্ষেত্রেও সাম্প্রতিক ভবিষ্যতে ঘটতে পারে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন