রামকান্ত দেউড়ি
রামকান্ত দেউড়ি, বিজেপি বিধায়ক

ওয়েবডেস্ক : সদ্য প্রকাশিত অসম এনআরসি-র চূড়ান্ত খসড়া তালিকায় নাম নেই খোদ বিজেপি বিধায়ক রামকান্ত দেউড়ির। শুধু তিনি নন তালিকা থেকে বাদ পড়েছে এআইডিইউএফ বিধায়ক অনন্ত মালোরর নামও। তবে উল্লেখ‌যোগ্য ভাবে তালিকায় নাম রয়েছে উগ্রবাদী নেতা পরেশ বড়ুয়ার নাম।

প্রশ্ন উঠছে, বিধায়ক হতে গেল মনোনয়ন জনা দেওয়ার সময় ভারতীয় নাগরিকত্ব প্রমাণের ‌যাবতীয় নথিপত্র জমা দিতে হয়। সেই নথি খতিয়ে দেখার পরই মেলে ছাড়পত্র। তা সত্ত্বেও কেন ওই দুই বিধায়কের নাম তালিকায় উঠল না?

চূড়ান্ত খসড়া তালিকা থেকে বাদ গিয়েছে ৪০লক্ষের বেশি নাম। ঠিক কী কারণে এই ৪০ লক্ষের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে সেটা প্রকাশ্যে আনা যাবে না বলে জানিয়েছেন নাগরিকপঞ্জির সমন্বয়ক প্রতীক হাজেলা। তালিকায় তাঁর নিজের নামই বাদ গিয়েছে।

নাগরিকপঞ্জিতে ওঠেনি ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ফকরুদ্দিন আলি আহমেদের ভাইপোর পরিবারের সদস্যদের নাম। ৩০ বছর ধরে সেনাবাহিনীতে কাজ করেও তালিকা থেকে নাম বাদ গিয়েছে অসমের বাসিন্দা মহম্মদ আজমল হকের নাম।

তালিকা প্রকাশের পরপরই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন, ‌যাঁদের নাম বাদ পড়েছে তারা আবার আবেদন করে নাম তুলতে পারবেন। একই বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালও।

নাম বাদ পড়ায় ক্ষুদ্ধ বিজেপি বিধায়ক বাংলাদেশের সংবাদপত্র প্রথম আলোকে বলেন, “আমি জন্মসূত্রে ভারতীয়. কয়েক পুরুষ ধরে অসমে বসবাস করছি। আমি বৈধ ভূমিপুত্র, তাই কোনো আবেদন করব না”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here