Homeখবরদেশবিমানবন্দরে কঙ্গণাকে সপাটে চড় সিআইএসএফ জওয়ানের, কেন মারলেন, জানালেন অভিযুক্ত

বিমানবন্দরে কঙ্গণাকে সপাটে চড় সিআইএসএফ জওয়ানের, কেন মারলেন, জানালেন অভিযুক্ত

প্রকাশিত

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতকে চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে সপাটে চড় মারার অভিযোগ উঠেছে এক মহিলা সিআইএসএফ (CISF) জওয়ানের বিরুদ্ধে। জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত জওয়ান পাঞ্জাবের কাপুরথালার বাসিন্দা কুলবিন্দর কৌর। কঙ্গনার কৃষক আন্দোলন নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া স্বরূপ এই ‘চড়’ বলে জানিয়েছেন অভিযুক্ত।

কঙ্গনা রানাউত বিমানবন্দরে সিকিউরিটি চেকিংয়ের সময় এই হামলার শিকার হন। তিনি জানান, কুলবিন্দর কৌর তাঁর কাজ শেষ হওয়া অবধি অপেক্ষা করেন এবং কঙ্গনা সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় আচমকাই পাশ থেকে চড় মারেন। কঙ্গনা বলেন, “আমাকে হেনস্তা করা হয়েছে। যখন আমি ওই মহিলা জওয়ানকে জিজ্ঞেস করলাম, কেন উনি এই কাজ করলেন? উনি পালটা কৃষক আন্দোলনের কথা টেনে আনলেন।”

হামলার পর কুলবিন্দর কৌরকে বরখাস্ত করা হয়েছে এবং তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। কুলবিন্দর কৌর তাঁর কাজের কারণ হিসেবে বলেন, “কঙ্গনা বলেছিলেন ১০০ টাকার জন্য কৃষকরা ওখানে বসে আছে। উনি কি গিয়ে বসেছিলেন সেখানে? কঙ্গনা যখন এহেন কটুক্তি করছিলেন কৃষক আন্দোলন নিয়ে, তখন আমার মা শামিল ছিলেন ওই প্রতিবাদে।”

২০২১ সালে দিল্লির রাজপথে মাসব্যাপী চলা পাঞ্জাবের কৃষক আন্দোলনের বিরোধিতা করে কঙ্গনা রানাউত একাধিক আক্রমণাত্মক টুইট করেন। আন্দোলনরত কৃষকদের কখনও ‘খলিস্তানি’, কখনও ‘সন্ত্রাসবাদী’ বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বিতর্কিত তিন কৃষি বিল প্রত্যাহারের ঘোষণা করার পরও তিনি কৃষকদের ‘জিহাদি’ বলে আক্রমণ করেন। সেই সময়ে কঙ্গনার মন্তব্য শিখ সম্প্রদায়ের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে এবং তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

ঘটনার পর কঙ্গনা পাঞ্জাবে বাড়তে থাকা সন্ত্রাস নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং বলেন, “আমি উদ্বিগ্ন পাঞ্জাবে বাড়তে থাকা সন্ত্রাস নিয়ে। কী করে এদের সামলাব আমরা?”

এই ঘটনায় আরও একটি ভিডিয়ো নেটমাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তাতে দেখা যাচ্ছে কঙ্গনার সঙ্গে থাকা এক ব্যক্তি বিজেপি সাংসদের ব্যাগ বয়ে আনা মহিলাকে থাপ্পড় মারছেন। যদিও এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি খবর অনলাইন।

সাম্প্রতিকতম

উপনির্বাচনে ভরাডুবি বিজেপির, ৪ আসনেই জয়ী তৃণমূল

আরও কমল বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা। রাজ্যের চার বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে শূন্য হাতেই ফিরতে হল...

সেপটিক ট্যাঙ্কে চোলাই মদের সরঞ্জাম লুকিয়ে রাখার অভিযোগ, তুলতে গিয়ে নাবালক-সহ মৃত ৩

শনিবার সকালে পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরা ব্লকের চকরাধাবল্লভ গ্রামে সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে তিন জনের মৃতদেহ...

ব্যক্তিগত ঋণের সুদের হার: এই ৫টি ব্যাঙ্ক সর্বনিম্ন হারে ঋণ দিচ্ছে

পার্সোনাল লোন বা ব্যক্তিগত ঋণে সুদের হার পরিবর্তনশীল। সিবিল স্কোর, আয়, ঋণের পরিমাণ, ঋণের...

মাত্র সাড়ে ৪ হাজার টাকা ঋণ আদায়ে আটকে রেখে মারধর, অপমানে আত্মঘাতী দলিত যুবক

ধারের টাকা শোধ করতে না পারায় এক দলিত যুবককে আটকে রেখে মারধর। অপমানে আত্মঘাতী...

আরও পড়ুন

ব্যক্তিগত ঋণের সুদের হার: এই ৫টি ব্যাঙ্ক সর্বনিম্ন হারে ঋণ দিচ্ছে

পার্সোনাল লোন বা ব্যক্তিগত ঋণে সুদের হার পরিবর্তনশীল। সিবিল স্কোর, আয়, ঋণের পরিমাণ, ঋণের...

মাত্র সাড়ে ৪ হাজার টাকা ঋণ আদায়ে আটকে রেখে মারধর, অপমানে আত্মঘাতী দলিত যুবক

ধারের টাকা শোধ করতে না পারায় এক দলিত যুবককে আটকে রেখে মারধর। অপমানে আত্মঘাতী...

বিশ্বের আত্মহত্যার রাজধানী হয়ে উঠেছে ভারত, এনসিআরবির রিপোর্টে চাঞ্চল্যকর তথ্য

মৌ বসু সম্প্রতি মুম্বইয়ে এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটে যা গোটা দেশের মানুষের মনে নাড়া দিয়ে...
মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখার ৮ টি অভ্যাস হাড়ের ঘনত্ব বাড়াতে ৯টি যোগব্যায়াম