Manish Sisodia
মণীশ সিসোদিয়া। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: আবগারি নীতিতে দুর্নীতির অভিযোগে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়ার (Manish Sisodia) বাড়িতে শুক্রবার তল্লাশি চালায় সিবিআই (CBI)। যা নিয়ে তুমুল রাজনৈতিক চাপানউতোর। এরই মধ্যে সিসোদিয়া দাবি করলেন, তাঁর বিরুদ্ধে সমস্ত সিবিআই এবং ইডি মামলা বন্ধ করার প্রস্তাব দিয়েছে বিজেপি। বিনিময়ে তাঁকে যোগ দিতে হবে গেরুয়া শিবিরে।

নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত মামলাকে মিথ্যা বলে দাবি করে আপ নেতা বলেন, “ষড়যন্ত্রকারী এবং দুর্নীতিবাজদের” সামনে কোনো মতেই মাথা নত করবেন না তিনি।

একটি টুইটে সিসোদিয়া লেখেন, “আমি বিজেপির কাছ থেকে একটি বার্তা পেয়েছি- ‘আপ ছাড়ুন এবং বিজেপিতে যোগ দিন। তা হলে আপনার বিরুদ্ধে সিবিআই এবং ইডি-র সমস্ত মামলা বন্ধ করার নিশ্চয়তা রয়েছে’। বিজেপি-কে আমার উত্তর – আমি মহারানা প্রতাপের বংশধর এবং একজন রাজপুত। আমি শিরশ্ছেদ করতে প্রস্তুত কিন্তু ষড়যন্ত্রকারী এবং দুর্নীতিবাজদের সামনে মাথা নত করতে পারি না। আমার বিরুদ্ধে সব মামলা মিথ্যা। আপনারা (বিজেপি) যা করতে চান, তা করুন”।

পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় সিসোদিয়া জানান, “আমি একটি টেক্সট পেয়েছি। সিবিআই, ইডি মামলা প্রত্যাহার করা হবে যদি আমি দল ছেড়ে দিই। তারা আমাকে মুখ্যমন্ত্রী পদের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে। আমি এখানে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য নয়, সারা দেশের পড়ুয়াদের কাছে সেরা শিক্ষা পৌঁছে দিতে এসেছি”।

এর আগেই সিসোদিয়া জানিয়েছেন, সিবিআই কয়েক ঘণ্টা অনুসন্ধানের পরে তাঁর কম্পিউটার এবং মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে এবং কিছু ফাইলও নিয়ে গিয়েছে। কিন্তু তিনি কোনো ভুল কাজ করেননি। যে কারণে সিবিআই তদন্তে ভীত নন। তাঁর দাবি, দিল্লিতে কেজরিওয়াল সরকারকে “ভালো কাজ” থেকে বিরত রাখতে কেন্দ্রীয় সংস্থার অপব্যবহার করা হচ্ছে।

সিবিআই-এর দাবি, মদের দোকানের লাইসেন্স পাওয়ার জন্য দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী তথা আবগারি বিভাগের মন্ত্রী সিসোদিয়া কোটি টাকা নিয়েছিলেন। ইতিমধ্যেই সিবিআইয়ের তরফে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। ওই এফআইআরে নাম রয়েছে সিসোদিয়া-সহ ১৫ জনের। ১১ পাতার এফআইআরে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র ও ভুয়ো অ্যাকাউন্টের নথি দেখানোর অভিযোগ আনা হয়েছে।

আরও নির্দিষ্ট করে সিবিআই-এর অভিযোগ, সিসোদিয়া ঘনিষ্ঠকে পাঁচ কোটি টাকা দিয়েছিলেন সমীর মহেন্দ্রু নামে এক মদ ব্যবসায়ী। এর পাশাপাশি সিসোদিয়ার আরও এক ঘনিষ্ঠ ওই ব্যবসায়ীর থেকে নগদে দুই থেকে চার কোটি টাকা সংগ্রহ করেছিলেন বলেও এফআইআর-এ উল্লেখ করেছে সিবিআই।

আরও পড়তে পারেন:

শীর্ষ বিজেপি নেতার উপর আইএস-এর হামলার ছক! আত্মঘাতী হামলাকারী আটক রাশিয়ায়

আপ তো সুবিধাবাদী, কিন্তু কংগ্রেসের আচরণ? মণীশ সিসোদিয়াকে নিয়ে সিবিআই তদন্ত প্রসঙ্গে ওমর আবদুল্লা

যন্তর মন্তরে কিষান সমাবেশ, রাকেশ টিকায়েত আটক, দিল্লিতে কড়া নিরাপত্তা

সন্তানকে ১৭ বছর বয়স পর্যন্ত বেসরকারি স্কুলে পড়ানোর খরচ প্রায় ৩০ লক্ষ, বলছে সমীক্ষা

ভারত-চিন সম্পর্কে এই বিষয়টি আর গোপন নয়, জানালেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন