ashok gasti

বেঙ্গালুরু: রাজ্যসভায় নির্বাচিত হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন বিজেপি সাংসদ অশোক গস্তি।

বুথস্তরের কর্মী থেকে রাজনৈতিক জীবন শুরু করে উত্তর কর্নাটকের রাইচূড়ের বাসিন্দা অশোক রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচিত হন। তবে গত জুন মাসে রাজ্যসভার সাংসদ হওয়ার পর থেকে একটি বারের জন্য সংসদে যাওয়ার সুযোগ মেলেনি প্রথম বারের সাংসদের।

সাংসদ নির্বাচিত হওয়ার পর অশোক সংবাদ মাধ্যমের কাছে জানিয়েছিলেন, “এটা খুবই আনন্দের একটি মুহূর্ত। এক জন বুথস্তরের কর্মী থেকে রাজ্যসভার সদস্য হিসেবে স্বীকৃতি শুধুমাত্র বিজেপিতেই সম্ভব। এই ঘটনা লক্ষ লক্ষ বিজেপি কর্মীকে উৎসাহিত করবে”।

২০১২ সালে কর্নাটকের অনগ্রসর শ্রেণি কমিশনের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন তিনি। আরএসএস এবং এবিভিপির সদস্য অশোক ১৮ বছর বয়সে বিজেপিতে যোগ দেন। তিনি কর্নাটকে বিজেপির যুবমোর্চার সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছিলেন।

গত ২ সেপ্টেম্বর বেঙ্গালুরুর মনিপাল হাসপাতালে ভরতি করা হয় অশোককে। পরিবারের তরফে জানানো হয়, তাঁর শ্বাসকষ্ট দেখা দিয়েছিল। এ ছাড়া অন্যান্য কো-মর্বিডিটি থাকায় তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর।

উল্লেখ্য, এর আগে তামিলনাড়ুর কন্যাকুমারীর কংগ্রেস সাংসদ এইচ বসন্তকুমারের মৃত্যু হয় গত ২৮ আগস্ট। তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে চেন্নাইয়ের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তামিলনাড়ুর প্রথমবারের সংসদ সদস্য এইচ বসন্তকুমার অতীতে দু’বার নাঙ্গুনেরি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির কার্যকরী সভাপতি ছিলেন।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন