গুজরাতে অব্যাহত গেরুয়া ঝড়, কংগ্রেসের হাতে হিমাচল

0

নয়াদিল্লি: গুজরাতে রেকর্ড জয় বিজেপির। হিমাচলপ্রদেশে ‘ঐতিহ্য’ রক্ষা করল কংগ্রেস!

গুজরাত বিধানসভা ভোটের ফলাফল

এই নিয়ে টান সাত বার ভোটে জিতে গুজরাতের ক্ষমতায় এল বিজেপি। শুধুমাত্র মেয়াদে নয়, আসন সংখ্যার দিক থেকেও রেকর্ড গড়েছে গেরুয়া শিবির। ১৯৮৫ সালে কংগ্রেস পেয়েছিল ১৪৯টি আসন। এ বার সেই সংখ্যা অতিক্রম করল বিজেপি। বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় জাতীয় নির্বাচন কমিশন ঘোষিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ১৮২ আসনের গুজরাত বিধানসভায় বিজেপি জয়ী/এগিয়ে ১৫৬টি আসনে।

সেই জায়গায় কংগ্রেস পেয়েছে মাত্র ১৭টি আসন। এটাই তাদের সর্বকালের সবচেয়ে কম প্রাপ্ত আসন। অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টির ঝুলিতে গিয়েছে ৫টি আসন। সমাজবাদী পার্টি এবং অন্যান্য পেয়েছে যথাক্রমে ১ এবং ৩টি করে আসন।

এ বারের গুজরাত বিধানসভা ভোটে উল্লেখযোগ্য দলগুলির প্রাপ্ত ভোটের শতকরা হার

বিজেপি: ৫২.৫০ শতাংশ‌‌

কংগ্রেস: ২৭.২৮ শতাংশ

আপ: ১২.৯২ শতাংশ‌

নিজের রাজ্যে বিপুল ব্যবধানে এই জয়ের পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গুজরাতকে ধন্যবাদ জানান। মোদী টুইটারে লেখেন, ভোটের ফলাফলে তিনি আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছেন।

হিমাচলপ্রদেশ বিধানসভা ভোটের ফলাফল

গত বার, ২০১৭ সালের ফল অনুযায়ী, বিজেপি পেয়েছিল ৪৪টি আসন। কংগ্রেস পায় ২১টি । সিপিএম পেয়েছিল ১টি আসন এবং নির্দল প্রার্থীরা জিতেছিলেন ২টি আসনে। ১৯৮৫ সালের পর আর কখনও শাসক দলকে পুনঃনির্বাচিত করেনি হিমাচল। এ বারও সেই ঐতিহ্য়ের পুনরাবৃত্তি।

ভোটগণনা শেষে নির্বাচন কমিশন জানায়, ৬৮ আসনের হিমাচল বিধানসভায় কংগ্রেস জয়ী হয়েছে ৪০টি আসনে। সেই জায়গায় বিজেপি পেয়েছে ২৫টি। আপ-এর ঝুলি শূন্য, তবে নির্দলরা পেয়েছে ৩টি আসন।

এ বারের হিমাচল বিধানসভা ভোটে উল্লেখযোগ্য দলগুলির প্রাপ্ত ভোটের শতকরা হার

কংগ্রেস: ৪৩.৯০ শতাংশ

বিজেপি: ৪৩ শতাংশ‌‌

আপ: ১.১০ শতাংশ‌

ফলাফল ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস, “হিমাচলে আমরা সামান্য পিছিয়ে আছি। কিন্তু হিমাচলের উন্নয়নে কেন্দ্রের উদ্যোগ কোনো খামতি থাকবে না”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন