ভোটের মধ্যেই বিজেপি মুখপাত্রের ইস্তফা, বললেন আত্মবিশ্লেষণ চাই

0
BJP
প্রতীকী ছবি

রাঁচি: পাঁচ দফার ভোটের মধ্যে সবে প্রথম দফা পার হয়েছে। দু’ দিন আগে মাত্র ১৩টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোট নেওয়া হয়েছে। এখনও বাকি আছে ৬৮ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ। এরই মধ্যে ইস্তফা দিয়ে বসলেন ঝাড়খণ্ড বিজেপির মুখপাত্র প্রবীণ প্রভাকর। ইস্তফা দিয়ে বললেন, দলের মধ্যে আত্মবিশ্লেষণ করা দরকার।

জানা গিয়েছে, রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে টিকিট বণ্টনে অখুশি প্রবীণ প্রভাকর। বিজেপি থেকে ইস্তফা দিয়ে তিনি নালা কেন্দ্র থেকে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী হিসাবে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্টস ইউনিয়নের (আজসু) অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য প্রবীণ প্রভাকর পাঁচ বছর আগে বিজেপিতে যোগ দেন। ২০১৪-এর নির্বাচনে বিজেপির সঙ্গে একজোট হয়ে লড়েছিল আজসু। এ বার অবশ্য তারা আলাদা লড়ছে।

সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-কে প্রভাকর বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি প্রধান তথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে আমরা অনেক কিছুই শিখেছি। কিন্তু ঝাড়খণ্ডে বিজেপির কিছু আত্মবিশ্লেষণ দরকার।

রবিবার রাঁচির কনস্টিটউশন ক্লাবে এনপিপি-র জাতীয় কনভেনশন অনুষ্ঠিত হয়। বিজেপি মুখপাত্র প্রবীণ প্রভাকর যে নালা থেকে লড়বেন তা ওই কনভেনশনেই ঘোষণা করা হয়। ২০ ডিসেম্বর ঝাড়খণ্ড ভোটের পঞ্চম তথা শেষ দফায় নালা কেন্দ্রে ভোট নেওয়া হবে।  

আরও পড়ুন: মোদীর ‘বুলবুল’ প্রতিশ্রুতি নিয়ে বিধানসভায় ‘বোমা’ ফাটালেন মমতা!

সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনে এনপিপি-কে অষ্টম দল হিসাবে জাতীয় রাজনৈতিক দলের স্বীকৃতি দিয়েছে। উল্লেখ্য, লোকসভার প্রাক্তন স্পিকার পি এ সাংমা ২০১৩ সালে এনপিপি প্রতিষ্ঠা করেন।

জাতীয় কনভেনশনে এনপিপি-র প্রধান মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড কে সাংমা বলেন, তাঁর বাবার ইচ্ছা ছিল, বঞ্চিতদের হয়ে লড়াই করার উদ্দেশ্যে তাঁর দলকে শুধুমাত্র মেঘালয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখলে চলবে না, জাতীয় দল হিসাবে সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে হবে।

ওই অনুষ্ঠানে প্রভাকর বলেন, বিজেপির সঙ্গে তাঁর কোনো ব্যক্তিগত শত্রুতা নেই, কিন্তু এই রাজ্যে দলের আত্মসমীক্ষা করা দরকার। মোদী ও অমিত শাহের নেতৃত্বের প্রশংসা করে তিনি বলেন, “দেশ সব ক্ষেত্রেই এগিয়ে চলেছে। কিন্তু ঝাড়খণ্ডে জনগণের আশাআকাঙ্ক্ষাকে অনবরত দমন করা হচ্ছে। ঝাড়খণ্ডকে আলাদা রাজ্য হিসাবে গড়ে তোলার ব্যাপারে আমি আমার সব কিছু উজাড় করে দিয়েছি। আর এর উন্নয়নের জন্য আমি সারা জীবন লড়াই করে যাব। আমার এই প্রচেষ্টায় আমি এনপিপি নেতৃত্বের কাছ থেকে যে সাহায্য ও পরামর্শ পাব, সে সম্পর্কে আমার পূর্ণ বিশ্বাস আছে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.