গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এড়াতেই কি এমন সিদ্ধান্ত নিলেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদিউরাপ্পা?

0

ওয়েবডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার তিন সপ্তাহ পর মন্ত্রিসভা গঠন করেছিলেন তিনি। আর তার পর আরও ছ’ দিন সময় লাগালেন মন্ত্রীদের দফতর বণ্টন করতে। এর মধ্যে তিন জনকে উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ করলেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদিউরাপ্পা। এই সব দেখেই বিরোধীদের টিপ্পনী, বিজেপির মধ্যে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এড়াতেই এই কাজ করেছেন ইয়েদি।

কর্নাটকের উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ পেলেন গোবিন্দ এম কারজোল, অশ্বত্থ সি এন এবং লক্ষ্মণ সাবাদি। এ ছাড়াও কারজোলকে পূর্ত এবং সমাজ কল্যাণ মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পূর্বতন জোট সরকারের পতনের পিছনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করা অশ্বত্থ নারায়ণ পেলেন উচ্চশিক্ষা, তথ্য প্রযুক্তি, পরিবেশ প্রযুক্তি এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি দফতরের দায়িত্ব। লক্ষ্মণ সাবাদিকে পরিবহণ দফতরের দায়িত্ব দিয়েছেন ইয়েদিউরাপ্পা।

আরও পড়ুন বন্যার পর দহনজ্বালায় জেরবার উত্তদিউর্ব ভারত, পারদ চড়ছে উত্তরবঙ্গেও

মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণকে কেন্দ্র করে এর আগেই বিজেপি নেতাদের একাংশ ক্ষুব্ধ হন। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, অনেক বিধায়কই দলের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করেন। জোট সরকার ভাঙার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করার জন্য ‘পুরস্কৃত’ করা হয়েছিল ১৭ জনকে। কিন্তু বাকিরা অসন্তুষ্ট। এই অসন্তোষকে সামাল দেওয়াই এখন বড়ো চ্যালেঞ্জ ইয়েদিউরাপ্পার।

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.