ওয়েবডেস্ক: দলিতদের পাশে টানার জন্য বিজেপি যে ভাবে মরিয়া হয়ে উঠেছে সেটা আম্বেডকরের মূর্তি-রাজনীতি দেখেই বোঝা যাচ্ছে। উত্তরপ্রদেশের একটি গ্রামে আম্বেডকরের একটি গেরুয়ারঞ্জিত মূর্তি বসিয়েছিলেন স্থানীয় বিজেপি নেতারা। এর পর কয়েক ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই সেটাকে নীল রঙ করে দিলেন বিএসপির এক নেতা।

কিছু দিন আগে উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁতে ভাঙচুর করা হয়েছিল বিআর আম্বেডকরের একটি মূর্তি। সেই মূর্তি ভাঙা নিয়ে হইচই পড়ে যাওয়ায় নতুন একটি মূর্তি বসানোর সিদ্ধান্ত নেয় বিজেপি সরকার। কিন্তু নতুন মূর্তিটি গেরুয়ারঞ্জিত দেখে চমকে যান অনেকে।

অবশ্য উত্তরপ্রদেশে সব কিছুকেই গেরুয়া রঙ করে দেওয়ার একটা প্রবণতা তৈরি হয়েছে। কিছু দিন আগে লখনউয়ের হজ অফিস এবং লালবাহাদুর শাস্ত্রী ভবনও গেরুয়া রঙ করে দেওয়া হয়েছিল। এই ব্যাপারে অনেক বিতর্কও উঠেছিল। সেই বিতর্কের মুখে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন, “গেরুয়া মানে শুদ্ধ। সূর্যও তো গেরুয়া, কেউ কি সূর্যের উপস্থিতি অস্বীকার করতে পারে।”

যাই হোক গেরুয়া আম্বেডকরের মূর্তি দেখে বিরোধীরা যখন সরকারকে বিঁধতে শুরু করে দিয়েছে তখনই পালটা চাল চাললেন স্থানীয় এক বিএসপি নেতা। ওই মূর্তিটায় গেরুয়া রঙের ওপরেই নীল রঙের ব্রাশ চালিয়ে দেন ওই বিএসপি নেতা। ওই নেতা হেমেন্দ্র গৌতম বলেন, আম্বেডকরের মূর্তিকে গেরুয়া রঙ করে দলিতদের অপমান করা হয়েছে, তার প্রতিবাদেই নীল রঙ করেছেন তিনি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন