প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা
প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা। প্রতীকী ছবি

অমরাবতী: দেশের মানুষ স্পন্দনের মতো এক গণতন্ত্র। যা আগাগোড়া আদর্শে মোড়া। যেখানে ব্যক্তি পরিচয় এবং মতামতের পার্থক্যকে কখনোই অসম্মান করা হবে না। তেমনই এক গণতন্ত্র গড়ে তোলার আহ্বান জানালেন প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা (CJI NV Ramana)।

শনিবার তিনি বলেন, “দুর্নীতিগ্রস্ত চিন্তাভাবনাকে অনুমতি দেবেন না। অন্যায়কে প্রশ্রয় দেবেন না। সম্প্রদায় ও সমাজের চাহিদার প্রতি
অনুভূতিপ্রবণ হোন”।

অন্ধ্রপ্রদেশকে উদার আর্থিক সহযোগিতার সওয়াল করে প্রধান বিচারপতি বলেন, রাজ্যটি বিভক্ত হওয়ার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জনগণের মধ্যে ক্ষোভের অনুভূতি রয়েছে। রাজ্য ভাগের পরে অর্থের দিক থেকে পিছিয়ে পড়ে অন্ধ্রপ্রদেশ। কেন্দ্রের উচিত আর্থিক সহযোগিতা বাড়ানো। পাশাপাশি মানুষেরও কঠোর পরিশ্রম করা উচিত। রাজ্যকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

বিজয়ওয়াড়া শহরের নতুন আদালত কমপ্লেক্সের উদ্বোধনের পর বক্তৃতা করছিলেন প্রধান বিচারপতি রমনা। তিনি বলেন, সমাজ তখনই এগিয়ে যাবে, যখন শান্তি থাকবে এবং সব অংশকে যথাযথ প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পাবে। হাইকোর্ট এবং সর্বোচ্চ আদালতে বিচারক নিয়োগের বিষয়েও মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, সমস্ত অঞ্চল, বিভাগ এবং মহিলাদের যথাযথ প্রতিনিধিত্ব দেওয়া হয়েছে।

১৬ মাস সর্বোচ্চ আদালতের শীর্ষপদের দায়িত্বে রয়েছেন রমনা। এই সময়ের মধ্যে বিচারপতি নিয়োহে বিভিন্ন বিভাগকে যথাযথ প্রতিনিধিত্ব দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, এটা বিচার বিভাগের প্রতি মানুষের আস্থা বাড়িয়ে তুলবে।

পাশাপাশি বলেন, জনগণের উচিত বিচার ব্যবস্থার প্রতি আস্থা রাখা। বিচার বিভাগের প্রতি মানুষের আস্থা হারালে তা গণতন্ত্রের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। স্বল্প সময়ের মধ্যে যাতে ন্যায়বিচার দেওয়া যায়, সে দিকেও সজাগ থাকতে হবে বিচার বিভাগীয় কর্তাব্যক্তিদের।

উল্লেখ্য, প্রধান বিচারপতি পদ থেকে রমনা অবসর নিচ্ছেন আগামী ২৬ আগস্ট। পর দিন, ২৭ আগস্ট দায়িত্ব গ্রহণ করবেন ইউইউ ললিত। সম্প্রতি, আইনমন্ত্রকের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, “ভারতের সংবিধানের ১২৪ অনুচ্ছেদের ধারা (২)-এ প্রদত্ত ক্ষমতা প্রয়োগ করে, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি উদয় উমেশ ললিতকে ভারতের প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ করেছেন রাষ্ট্রপতি”।

আরও পড়তে পারেন:

‘দলের সঙ্গে ছিলাম, দলের সঙ্গে আছি’, সাসপেন্ড হওয়ার পরও তাৎপর্যপূর্ণ বার্তা পার্থর

ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্যবসায়ী-সহ ৩৪ জনের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ, গ্রেফতার হতে পারেন ইমরান খান

ঘুষ ছাড়া ফাইল নড়ে না, সরকারি অফিস এখন ব্যাপক দুর্নীতির আখড়া, মন্তব্য কর্নাটক হাইকোর্টের

মিলল না জামিন! আরও কত দিন সিবিআই হেফাজতে অনুব্রত মণ্ডল

আগামী ২-৩ দিনের মধ্যেই গ্রেফতার হবেন মণীশ সিসোদিয়া! কী কারণে, সেটাই জানালেন দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন